দ্বিতীয় পেশাগত পরীক্ষার কর্ম-পরিকল্পনা

লেখকঃ মারেফুল ইসলাম মাহি

পরিকল্পনা ছাড়া বেশির ভাগ কাজ ঠিক মত হয় না। সুষ্ঠু পরিকল্পনার অভাবে আজ আমি মেডিকেল কলেজের পঞ্চম বর্ষে পড়তেসি।অন্য জায়গায় পড়লে হয়ত এত দিনে চাকরি-বাকরি করতাম। আচ্ছা,আজাইরা প্যাঁচাল বাদ দিয়ে এবার কাজের কথায় আসি।

আপনি যদি জুনের ১ তারিখ থেকে পড়া শুরু করেন, তাহলে আপনাকে ২৫০-৩০০ ঘণ্টা ব্যয় করতে হবে পুরো সিলেবাস শেষ করার জন্য। সময়ের হিসাব দেখে ভয় পাবেন না, ব্যাখ্যা করতেসি একটু পর।

প্ল্যান এঃ
কঠিন কাজ আগে শেষ করলে মনে প্রশান্তি পাওয়া যায়। পরের জন্য রেখে দিলে দুশ্চিন্তা বাড়ে। তাই যে বিষয় সব চেয়ে বিরক্তি লাগে,সেটাই আগে শেষ করে ফেললে ভাল হয়।

দ্বিতীয় পেশাগত পরীক্ষার সব চেয়ে বিরক্তিকর বিষয় হিসেবে অনেকেই বলবেন Community Medicine এর কথা। এক সপ্তাহের জন্য সব কাজ বাদ দিয়ে পড়া শুরু করে শেষ করে ফেলেন Community Medicine। দেখবেন যে দুশ্চিন্তা অনেক কমে যাবে।

দ্বিতীয় বিরক্তিকর বিষয় মনে হতে পারে Forensic Medicine কে। সম্ভবত পাঁচ বিষয়ের মধ্যে এই বিষয়ের ব্যাপ্তি সবচেয়ে কম। এক সপ্তাহের মধ্যে সিলেবাস শেষ করতে পারবেন।

Pharmacology এর drug এর নাম মুখস্ত রাখাও অনেকের বিরক্তের কারন। এ ব্যাপারে কিসু কাজ করতেসি।ছয় দিনের মধ্যে সিলেবাস শেষ করলে ভাল হয়।

Microbiology বিষয়টা অতটা বিরক্তিকর না। ছয় দিনের মধ্যে সিলেবাস শেষ করতে পারবেন বলে আশা করি।

Pathology হইতেসে দ্বিতীয় পেশাগত পরীক্ষার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এ বিষয়ের জন্য কমপক্ষে সাত দিন সময় রাখতে পারেন। কিন্তু ১০ দিনের খাটুনি ৭ দিনে খাটতে হবে।

প্ল্যান বিঃ

বিষয় ভিত্তিক সিলেবাস শেষ না করে যদি ৫ বিষয় এক সাথে পড়তে চান, সে ব্যবস্থা ও আসে।
দ্বিতীয় পেশাগত পরীক্ষায় আপনাকে ১৬ টা টার্ম দিতে হয়। এই ১৬ টা টার্মের জন্য আপনি পাইতেসেন ৩০ দিন। অর্থাৎ ১ টা টার্মের জন্য প্রায় ২ দিন।
দৈনিক ৮ ঘণ্টা পড়লে, ২ দিনে এক টার্ম শেষ করা যায়।
দৈনিক ১০ ঘণ্টা পড়লে, দেড় দিনে এক টার্ম শেষ করা যায়।
দৈনিক ১২+ ঘণ্টা পড়লে, ১ দিনে এক টার্ম শেষ করা যায়।
পুরো জুন মাসে ৩০০+ ঘণ্টা পড়তে পারলে সিলেবাস শেষ করে রিভিসন ও দিতে পারবেন।

পড়া-লেখা আসলে নিজের কাসে। আপনি ভালমত পড়ে পরীক্ষায় বসলে ভাল ফলের আশা করতে পারেন যদিও ‘ভাগ্য’ বলে একটা কথা আসে।
আল্লাহ আপনাদের দ্বিতীয় পেশাগত পরীক্ষার পথ মসৃণ করুন।

ডক্টরস ডেস্ক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Next Post

Fever: Symptomatic approach: GP Guideline by Platform

Sat May 31 , 2014
Contributor: Dr. Suman Chowdhury, Ex- Medical Officer, Chitagong Medical College Hospital Fever: That is the increased body temperature more than 38°C. Remember: Fever is not a Diagnosis, rather a Symptom (and a sign). Patient visit to the GP with this symptom very often. Lets discuss on it here  As a […]

সাম্প্রতিক পোষ্ট