• অতিথি লেখা

March 15, 2017 12:36 pm

প্রকাশকঃ

১৪ ফেব্রুয়ারী Valentine day
valentine day কী? এই প্রশ্নের উত্তরে ছোট বাচ্চাও দাঁত কেলিয়ে কেলিয়ে হাসবে আর বলবে “আব্দুল্লাহ ভাই, আপনি জানেন না? এইটা তো ‘ভালোবাসা দিবস’।”
যারা একটু পন্ডিত টাইপের তারা হয়তো আরো একটু বেশি জানে যে valentine নামের একজন Christian saint কে সম্মান দেখিয়ে দিনটা পালন করা হয়। তবে এটা হয়তো অনেকেই জানেনা যে মেডিকেল সাইন্সের ভাষায় valentine একটা বিষের নাম।
বিষটার কথায় আসার আগে saint valentine সম্পর্কে দুটা কথা বলি।
রোম সাম্রাজ্যে তখন সৈন্যদের জন্যে বিয়ে করা নিষিদ্ধ। কারণ বিয়ে করলে তারা তাদের কাজের ব্যাপারে উদাসীন হয়ে যাবে।
saint valentine ঠিক তখন সৈন্যদের কে বিয়ে করার ব্যাপারে উৎসাহ দেয়া শুরু করেন। তাদের বিয়ের ব্যাবস্থাও করে দেন।
সেই অপরাধে তাকে কারাগারে বন্দি করা হয় এবং মৃত্যুদন্ডের আদেশ দেয়া হয়। কারাগারে থাকাকালে জেল রক্ষকের এক অসুস্থ মেয়েকে তিনি সুস্থ করে তুলেন। মেয়েটার নাম ছিলো Asterius.
অবশেষে মৃত্যুদন্ড সম্পন্ন করার আগের দিন saint Valentine, Asterius কে একটা চিঠি লিখে যান and চিঠির ঠিক নিচে লিখে যান, ‘your valentine’।
দিনটা ছিলো ১৪ ফেব্রুয়ারী। সেই স্মৃতি রক্ষার জন্যে ১৪ ফেব্রুয়ারী ভালোবাসা দিবস হিসেবে পালিত হয়।

আচ্ছা এখন আসি মেডিকেল সাইন্সে। এখানে valentine কিন্তু একটা বিষের নাম। কেউ বলবে, “ওই আব্দুল্লাহ, সব জায়গায় শুধু অশুভ কথা শুনাও কেন? ভালোবাসা দিবসে আসছো বিষের কাহিনী শুনাইতে।”
আমার কী দোষ?? পুস্তকে ছিলো লেখা।
যাই হোক, staphyloccus aureus নামের একটা ব্যাক্টেরিয়া একটা toxin তৈরি করে যার নাম Valentine। পুরো নাম Panton-Valentine-leukocidin। এই toxin মানব দেহের একটি গুরুত্বপূর্ণ রক্তকোষ WBC এর cell membrane এ ছিদ্র তৈরি করে দেয়। ফলে WBC এর সব সম্পদ বের হয়ে যায় আর অকাল মৃত্যু ঘটে WBC এর। [Review of medical microbiology and immunology by Warren Levinson,12th edition, page: 43]
এখানে একটা কথা বলে রাখা দরকার।

ব্যাক্টেরিয়া কে kill করার জন্যে একটা বহুল জনপ্রিয় bacteriocidal antibiotic হলো penicillin যা আলেকজান্ডার ফ্লেমিং ১৯২৯ সালে সর্বপ্রথম ‘penicillium notatum’ নামক ছত্রাক(Fungi) থেকে তৈরি করেন। এখন অবশ্য ‘penicillium Chrysogenum’ থেকে তৈরি হয়। [ উচ্চ মাধ্যমিক উদ্ভিদবিজ্ঞান by ড. মোহাম্মাদ আবুল হাসান, 10th edition, page: 361]

এখন penicillin বেশিরভাগ ব্যাক্টেরিয়াকে kill করলেও staphylococcus aureus কে kill করতে পারেনা কারণ staphylococcus aureus নিজে beta lactamase নামের এনজাইম তৈরি করে যা penicillin এর beta lactam ring কে ভেঙ্গে নিষ্ক্রিয় করে দেয়।
কিন্তু তাতে কি? ফার্মাকোলজিস্ট রা natural penicillin কে modify করে তৈরি করেছেন আরো শক্তিশালী antibiotic ‘methicillin’ যা beta lactamase দ্বারা নিষ্ক্রিয় হয় না। [Basic and Clinical pharmacology by Bertram G. Katzung, 12th edition,page: 790,792,796]
ওদিকে staphylococcus aureus ও কম বজ্জাত না। এমন কিছু শক্তিশালী প্রজাতির syaphylococcus এর আবির্ভাব ঘটাইছে যাদেরকে methicillin ও kill করতে পারেনা। এদের বলে methicillin resistant staphylococcus aureus(MRSA) [Review of medical microbiology and immunology by Warren Levinson,12th edition, page: 111]

panton-valentine-leukocidin এই বজ্জাত প্রজাতির MRSA থেকেই অাসে।
so ভালোবাসেন তবে MRSA এর Valentine থেকে সাবধান।

মূল লেখাঃ আব্দুল্লাহ আব্দুল আজিজ
নর্থ ঈস্ট মেডিকেল কলেজ। FB_IMG_1489559484790

শেয়ার করুনঃ Facebook Google LinkedIn Print Email
পোষ্টট্যাগঃ #platform_academia #medical_fun,

পাঠকদের মন্তব্যঃ ( 1)




Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Advertisement
Advertisement
.