মুগদা হাসপাতালে ১০ কেজি ওজনের টিউমার অপসারণ

মুগদা হাসপাতালে ১০ কেজি ওজনের টিউমার অপসারণ

গত ০৪/০১/২০১৯ তারিখে রাজধানীর মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০ কেজি ওজনের একটি ওভারিয়ান টিউমার অপসারণ করা হয়েছে । হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডাঃ মোঃ মাহবুবুর রহমান (কচি) এর নেতৃত্বে আয়শা আক্তার(৫৪) নামের এক রোগীর পেট থেকে ওই টিউমার অপসারণ করা হয়। তিনি বলেন ,” রোগীর ভাষ্যমতে দুইমাস আগে থেকে একটু একটু করে তার পেট ফুলতে শুরু করে । রোগী ভাবেন তিনি মোটা হয়ে যাচ্ছেন । কিন্তু দিন যাওয়ার সাথে সাথে ব্যথা শুরু হলে তিনি একজন লোকাল ডাক্তার দেখান। ডাক্তারের পরামর্শে তিনি আলট্রাসনোগ্রাফি করালে ডাক্তার বলে পেটে পানি জমেছে। ঢাকায় এসে ডাক্তার দেখানোর পরামর্শ দেন । পরে তিনি মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে ভর্তি হন আলট্রাসানোগ্রাফি ও সিটি স্ক্যান করার পরে ডাক্তারগণ পেটে টিউমার সনাক্ত করেন । তখনো তারা এটা জানতেন না যে এটা ওভারিয়ান টিউমার । অপারেশন করার সময় তারা বুঝতে পারেন যে এটা ওভারিয়ান টিউমার । রোগীর জীবনের ঝুঁকি কমাতে টিউমারের সাথে জরায়ু কেটে ফেলা হয় ।

” এই অপারেশনের অন্যান্য সার্জনরা হলেন ডাঃ এ . জেড. মাহমুদুল হাসান ( সহকারী অধ্যাপক) ডাঃ ওয়াসিহ উদ্দিন আহমেদ ডাঃ বুশরা নূর আল চৌধুরীএবং ব্লু ইউনিটের অন্যান্য চিকিৎসকেরা । অ্যানেস্থেসিয়া : ডাঃ মহুয়া শাহ নূর এবং ডাঃ শামীমা অস্ত্রোপচারের পর রোগী সুস্থ আছেন। প্রায় একমাস আগে এই রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়। বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরে তার টিউমার সনাক্ত করা হয়। দুই বছর আগে নিজের পেটে চাকা অনুভব করেন আয়শা আক্তার। বিভিন্ন চিকিৎসা করালেও তা ধীরে ধীরে বড় হতে থাকে। পরে মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির পর অস্ত্রোপচারের পর মাধ্যমে টিউমারটি অপসারণ করা হয়। তাকে দ্রুত হাতপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ডাঃ মোঃ মাহবুবুর রহমান (কচি) ।

প্ল্যাটফর্ম ফিচার রাইটার : নূর ই আফসানা

মুগদা মেডিকেল কলেজ

সেশন : ২০১৫-১৬

জামিল সিদ্দিকী

A dreamer who want to bring positive changes in health sector in Bangladesh.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Next Post

বাংলাদেশে এই প্রথম কোন বিদেশীর সফল কিডনি ট্রান্সপ্ল্যান্ট সম্পন্ন

Thu Feb 7 , 2019
বাংলাদেশে এই প্রথম কোন বিদেশীর কিডনি ট্রান্সপ্ল্যান্ট হয়েছে বাংলাদেশে। চিকিৎসক কমিনিউটির পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন, অধ্যাপক ডা. হাবিবুর রহমান দুলাল এবং তার টিম। চাঁদপুরের ছেলে বিন সালাউদ্দিন ভাগ্য অন্বেষণে ১২ বছর আগে মালয়েশিয়ায় পাড়ি জমান। দীর্ঘদিন মালয়েশিয়ায় থাকতে থাকতে তার কলিগ মালয়ি মেয়ে রোজ লায়লা’র প্রেমে পড়ে যান এবং তারপর […]

সাম্প্রতিক পোষ্ট