ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং এর বাংলাদেশ সফরের আদ্যপ্রান্ত

ময়মনসিংহ মেডিকেলের প্রাক্তন শিক্ষার্থী ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং ঢাকায়ঃ পাঁচটি সমঝোতা চুক্তি সই

চার দিনের সফরে, ১২ এপ্রিল ঢাকায় এসে পৌঁছেছেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং। শুক্রবার সকালে বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, যোগাযোগসহ বিভিন্ন খাতে সম্পর্ক এগিয়ে নিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফর।

প্রসঙ্গত, ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং বাংলাদেশের ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের সাবেক ছাত্র। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের অষ্টাদশ ব্যাচের ছাত্র লোটে শেরিং এমবিবিএস পাস করার পর বাংলাদেশেই সার্জারিতে উচ্চতর ডিগ্রি নেন। এর পর দেশে ফিরে যোগ দেন চিকিৎসকের পেশায়। ২০১৩ সালে চাকরি ছেড়ে রাজনীতিতে সক্রিয় হন। এর পর ২০১৮ সালে তার দল ডিএনটি জয়ী হলে ডা. লোটে শেরিং হন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী।

আগামীকাল ১৪ এপ্রিল বাংলা নববর্ষে ঢাকায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে সুরের ধারা আয়োজিত বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন তিনি।

পহেলা বৈশাখের উৎসব ভুটানের প্রধানমন্ত্রীরও পছন্দের।  ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের সাবেক ছাত্র হওয়ায় ঢাকা ও ময়মনসিংহে অনেকবার পহেলা বৈশাখ উদযাপন করেছেন তিনি। এ জন্য এই সময়কে তিনি সফরের জন্য বেছে নিয়েছেন।

জানা গেছে, পুরনো বিদ্যাপীঠ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ ও পিজি হাসপাতালেও তিনি যাবেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ১৩ এপ্রিল তিনি ঢাকায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক হয়েছে। তার এই সফরে বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ নৌপথ ব্যবহার করে ভুটানের বাণিজ্য সুবিধা ছাড়াও কৃষি ও স্বাস্থ্য খাতে কয়েকটি চুক্তি সই হতে পারে। ভুটান বাংলাদেশ থেকে বিশেষজ্ঞ ডাক্তার নিতে আগ্রহী।

এ ছাড়া শিক্ষা খাতে বিশেষ করে মেডিকেল কলেজে আরও ছাত্র পাঠাতে চায় দেশটি। এদিন সন্ধ্যায় হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে প্রধানমন্ত্রী আয়োজিত নৈশভোজে অংশ নেবেন শেরিং। সোমবার সকালে তিনি থিম্পুর উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবেন।

আজ ১৩ এপ্রিল, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং-এর দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে পাঁচটি সমঝোতা চুক্তি সই হয়েছে। আজ  শনিবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

এ সময় নিজ নিজ দেশের পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং।

এর আগে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে অংশগ্রহণের জন্য সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পৌঁছান ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং। এ সময় তাকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

স্বাস্থ্য, কৃষি, নৌ পরিবহন, পর্যটন খাতে সহযোগিতা এবং জনপ্রশাসন খাতে প্রশিক্ষণের বিষয়ে এই সমঝোতা স্মারক সই হয় বলে জানা গেছে।

এর আগে চার দিনের সফরে শুক্রবার ঢাকায় পৌঁছান লোটে শেরিং। শুক্রবার ঢাকায় এসেই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি ও জাতীয় সৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী।

ওয়েব টিম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Next Post

লোটে শেরিং চিকিৎসক দম্পতির, পহেলা বৈশাখ বর্ষবরন উৎসবের প্রস্তুতি

Sat Apr 13 , 2019
বাংলা নববর্ষের প্রথম দিনে বাংলাদেশে থাকবেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং ও তাঁর স্ত্রী। তাঁরা যোগ দেবেন বর্ষবরণ অনুষ্ঠানেও। বিষয়টি মাথায় রেখেই তাঁদের জন্য উপহারের ডালা সাজিয়েছে বাংলাদেশ। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর জন্য কেনা হয়েছে সিল্কের পাঞ্জাবি এবং তাঁর স্ত্রীর জন্য বেনারসি শাড়ি। আজ শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ […]

সাম্প্রতিক পোষ্ট