ডাক্তার তুই পালিয়ে যা !

পরীক্ষার খাতায় প্রায় সব শিক্ষার্থী তাদের জীবনের লক্ষ্য হিসেবে চিকিৎসক হওয়াকে বেছে নেয়। কিন্তু সত্যিকারই একজন চিকিৎসক হবার পেছনের গল্পটা আসলে কেমন? চিকিৎসক হবার পরই বা তার জীবন কিভাবে কাটে?
সবচেয়ে দীর্ঘসময়ের স্নাতক ডিগ্রী লাভ করেও তাদের কপালে জোটে ‘নবীন ডাক্তার’ এর তকমা। হাজার সামাজিক প্রতিকূলতার সাথে প্রতিনিয়ত সংগ্রাম করে টিকে থাকতে হয় তাকে। বর্তমানে গুটিকয়েক প্রতিষ্ঠিত সিনিয়র প্রফেসর ডাক্তারদের আর্থিক সচ্ছলতা সমগ্র ডাক্তার সমাজ সম্পর্কে জনসাধারণের ধারণা পাল্টে দিয়েছে। যদিও বাস্তবচিত্র সম্পূর্ণ ভিন্ন।
চিকিৎসা দেয়ার বেলায়ও ডাক্তারদের হতে হয় নানান বিড়ম্বনার শিকার। ডাক্তারের চেয়ে নিজের চিকিৎসা রোগীই যেন ভালো বুঝতে পারে। সেই সাথে ফার্মেসি এর ওষুধবিক্রেতা অথবা পল্লী চিকিৎসকদের ডাক্তারি না পড়েও নিজ নিজ এলাকায় রোগী দেখার কথা বলাই বাহুল্য।
এর উপর রয়েছে রোগীর আত্নীয় বা ভিআইপি দের বাড়াবাড়ি, সাংবাদিকদের হাসপাতাল ও চিকিৎসা পদ্ধতি সম্পর্কে অসম্পূর্ণ ও অসঙ্গতিপূর্ণ খবর। সব মিলিয়ে ডাক্তারি জীবনের বিভিন্ন বিড়ম্বনার প্রতিচ্ছবিই যেন বইটি । যেখানে, প্রতিটি ছড়ায় হাস্যরসের অন্তরালে রয়ে গেছে একজন ডাক্তারের বিড়ম্বনাময় জীবনের করুণ চিত্র।
বইয়ের নাম : ডাক্তার তুই পালিয়ে যা
লেখক : ডা রোমেন রায়হান
প্রচ্ছদ : রিশাম সাহাব তীর্থ
অলংকরণ : সালমান সাকিব শাহরিয়ার
বইয়ের নামকরণ : মুরাদ খান
ভূমিকা : আব্দুন নূর তুষার
প্রকাশক : মো . সাহাদাত হোসাইন
অন্বেষা প্রকাশন
প্রকাশকাল : ফেব্রুয়ারি ২০২০
পৃষ্ঠা সংখ্যা : ৮৮
মূল্য : ২০০ টাকা (২৫% ছাড়ে ১৫০ টাকা)
রকমারিতে প্রি-অর্ডার করতে পারেন।

লিংক

 

https://www.rokomari.com/book/194153/daktar-tui-paliye-ja

প্রমোশনাল রিপোর্ট : ডা এনায়েত উল্লাহ খান

Publisher

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Next Post

আ্যন্টিবায়োটিক বিক্রয়কারী ফার্মেসী ও ব্যবহারকারীদের প্রতি জারি হল সরকারি নির্দেশনা

Wed Jan 15 , 2020
গত ১৪-১-২০২০ ইং তারিখ, মঙ্গলবার গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর হতে এন্টিবায়োটিক ওষুধ বিক্রয়কারী ফার্মেসী ও ওষুধ ব্যবহারকারীদের প্রতি নির্দেশনা দিয়ে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। গণবিজ্ঞপ্তিটি নিম্নরূপ- ১। অ্যান্টিবায়ােটিক ঔষধ বিক্রয়কারী ফার্মেসীর প্রতি নির্দেশনা: * রেজিস্টার্ড চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র ব্যতিরেকে অ্যান্টিবায়ােটিক বিক্রয় বা বিতরণ করা যাবে না। * স্পষ্ট স্বাক্ষর […]

সাম্প্রতিক পোষ্ট