• নিউজ

July 31, 2014 6:40 pm

প্রকাশকঃ


বাড়িতে রোগী দেখতে না যাওয়ায় শেরপুর জেলার নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. এমরান হোসেনকে হাসপাতালে ঢুকে প্রকাশ্যে জুতা পেটা করলেন স্থানীয় শ্রমিক লীগ নেতার ভাই তৌহিদ।


অভিযুক্ত তৌহিদ সদ্য নির্বাচিত নকলা উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যন ও উপজেলা শ্রমিক লীগ সভাপতি সরোয়ার হোসেন তালুকদার এবং উরফা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা নূরে আলমের ছোট ভাই।  

জানা গেছে, ৩১ জুলাই বৃহষ্পতিবার বেলা ১২ টার দিকে ওই শ্রমিক লীগ নেতার ভাই তৌহিদ নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসেন। এ সময় হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক  ডা. এমরানকে রোগী দেখার জন্য তার বাসায় যেতে বলেন।

ডা. এমরান অফিস ফেলে বাসায় যেতে অপারগতা প্রকাশ করলে কিছু সময় পর তৌহিদ লোকজন নিয়ে এসে তাকে কিল ঘুষি ও জুতা পেটা করেন । পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

ডা. এমরান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমি বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তপক্ষের কাছে জানিয়েছি। জেলার সিভিল সার্জন নারায়ণ চন্দ্র দে  বিষয়টি অবগত হয়েছেন এবং এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়ার চিন্তা চলছে বলে জানিয়েছেন ।

নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলম হায়দার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত  করে জানান, এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে । তবে লিখিত কোনো অভিযোগ না থাকায় ব্যবস্থা নেয়া যাচ্ছে না।

অভিযুক্ত তৌহিদ জানিয়েছেন, ঘটনা সত্য। তবে আমি মারিনি, মেরেছে জনগন। কারণ তার বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে।  আমি তখন হাসপাতাল গেইটে ছিলাম।

তথ্যসূত্রঃ নতুনবার্তা

শেয়ার করুনঃ Facebook Google LinkedIn Print Email
পোষ্টট্যাগঃ উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্স, জুতাপেটা, ডাক্তার নির্যাতন, শেরপুর,

পাঠকদের মন্তব্যঃ ( 0)




Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Advertisement
Advertisement
.