• বিশেষ কলাম

October 14, 2019 4:07 pm

প্রকাশকঃ

ভিটামিন ডি একটি চর্বিতে দ্রবণীয় ভিটামিন, যা কিনা শিশুর হাড়ের বৃদ্ধির জন্য অত্যাবশ্যকীয়।

ইন্সটিটিউট অব মেডিসিন অ্যান্ড এন্ডোক্রাইন সোসাইটি এর ক্লিনিকাল প্র্যাকটিস গাইডলাইন অনুযায়ী serum 25-hydroxyvitamin D যদি ২০ ন্যানোগ্রাম/ মিলিলিটার এর চেয়ে কমে যায়, তখন তাকে ভিটামিন ডি এর ঘাটতি হিসেবে গণ্য করা হয়। এই ঘাটতি পূরণের লক্ষ্যে ১-১৮ বছর বয়সী শিশুদের জন্য কমপক্ষে ৬ সপ্তাহ প্রতিদিন ২০০০ IU (ইন্টারন্যাশনাল ইউনিট) ভিটামিন ডি ২/ ভিটামিন ডি ৩ দরকার অথবা প্রতি সপ্তাহে ৫০০০০ IU করে ৬ সপ্তাহ ভিটামিন ডি ২/ ভিটামিন ডি ৩ দরকার (এর সাথে মেইনটেনেন্স থেরাপি হিসেবে প্রতিদিন ৬০০-১০০০ IU চালিয়ে যেতে হবে )।

এর সাথে কিছু বিশেষ পরিস্থিতি অবশ্যই বিবেচনায় রাখতে হবে যেমন: শিশু স্থূলতায় আক্রান্ত কিনা, তার ম্যাল-এবজরপশন সিন্ড্রোম আছে কিনা অথবা কিছু বিশেষ ওষুধ যেগুলো ভিটামিন ডি এর মেটাবলিজমে গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব ফেলে যেমন: এন্টিকনভালসেন্ট, গ্লুকোকর্টিকয়েড, এন্টিফাংগাল, এন্টিরেট্রোভাইরাল প্রভৃতি ওষুধ সেবনকারী কিনা। অপর্যাপ্ত পরিমাণ সূর্যরশ্মির সংস্পর্শে আসার কারণে অথবা খাদ্যাভ্যাসে কম পরিমাণে ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার থাকার কারণে স্থূল শিশুদের ভিটামিন ডি জনিত অভাব হতে পারে বলে করা হয়। এছাড়া এরুপ শিশুদের ফ্যাটি টিস্যুতে জমা থাকা ভিটামিন ডি এর বায়ো এভেইলিবিলিটি কম থাকায় সাধারণ শিশুর তুলনায় এদের ২-৩ গুণ বেশি পরিমাণ ভিটামিন ডি এর প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়।

তথ্যসূত্র : ডা. রবি বিশ্বাস
এসোসিয়েট প্রফেসর, ঢাকা শিশু হাসপাতাল

স্টাফ রিপোর্টার / হৃদিতা রোশনী

শেয়ার করুনঃ Facebook Google LinkedIn Print Email
পোষ্টট্যাগঃ

পাঠকদের মন্তব্যঃ ( 0)




Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Advertisement
Advertisement
Advertisement
.