স্বাস্থ্য অধিদফতরের ডিজি ডা. দীন মোহাম্মদ চুক্তিতে নিয়োগ

স্বাস্থ্য অধিদফতরের বর্তমান মহাপরিচালক (ডিজি) চক্ষু বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. দীন মোহাম্মদ নুরুল হকের চুক্তিভিত্তিক চাকরির মেয়াদ এক বছর বৃদ্ধি করা হচ্ছে। সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে তিনিই আগামী এক বছরের জন্য মহাপরিচালক পদে নিয়োগ পেতে যাচ্ছেন। তার নিয়োগ এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। মঙ্গলবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় তাকে এক বছরের জন্য পুনঃচুক্তিভিত্তিক নিয়োগ প্রদান করে। আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে পরবর্তী এক বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক এ নিয়োগ দেয়া হয়েছে।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের জনসংযোগ কর্মকর্তা আক্কাস মিয়ার সঙ্গে সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় যোগাযোগ করা হলে তিনি এ খবরের সত্যতা স্বীকার করেন। জানা গেছে, দীন মোহাম্মদ নুরুল হকের বর্তমান চুক্তিভিত্তিক চাকরির মেয়াদ ৩০ আগস্ট শেষ হচ্ছে।
চুক্তিভিত্তিক পুনঃনিয়োগের খবর ছড়িয়ে পড়লে স্বাস্থ্য অধিদফতরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা মহাপরিচালকের কক্ষে গিয়ে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানাতে থাকেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ফুলেল শুভেচ্ছা জানানোর ফটোগ্রাফ প্রকাশিত হয়েছে।
নিয়মানুসারে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন ও নির্দেশক্রমে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় তাকে পুনরায় এক বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে ন্যস্ত করেছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ৩০ আগস্টের শেষ সময়ের আগেই তাকে মহাপরিচালক পদে নিয়োগ প্রদান করবে।
গত কয়েকমাস যাবত নতুন মহাপরিচালক হিসেবে কাউকে দেয়া হবে না-কি যিনি আছেন তাকেই আবার নিয়োগ দেয়া হবে এ নিয়ে নানা জল্পনা চলছিল। সম্ভাব্য ডিজি হিসেবে স্বাস্থ্য অধিদফতরের বর্তমান মহাপরিচালক অধ্যাপক দীন মোহাম্মদ নুরুলহক,অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন)ও পরিচালক (চিকিৎসা শিক্ষা ও জনশক্তি উন্নয়ণ) অধ্যাপক ডা. এবি এম আবদুল হান্নান, ঢাকা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মো. ইসমাইল খান ও স্বাস্থ্য অধিদফতরের সাবেক মহাপরিচালক (বর্তমানে ওএসডি) অধ্যাপক ডা. খন্দকার মো. সিফায়েত উল্লাহর নাম শোনা যাচ্ছিল।
বর্তমান মহাপরিচালকের এক বছরের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগাদেশ জারি হওয়ায় সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান হলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Next Post

ভয়ংকর শিরোনাম ও আমাদের সচেতনতা

Tue Aug 18 , 2015
সেদিন আমাদের হাসপাতালের জরুরী বিভাগে এক যুবক বয়সী লোক এসেছিলেন। সমস্যা – কাশি। কাশির ধরন আর ডিউরেশন শুনে উনাকে একটা বুকের এক্সরে আর কফ পরীক্ষা করতে দেই। কফ পরীক্ষা করাতে চাইলেও উনি এক্সরে করাতে রাজি হন নাই। কারন হিসেবে জানালেন, পত্রিকায় উনি দেখেছেন বিশ বারের বেশি এক্সরে করালে নাকি শরীরে […]

সাম্প্রতিক পোষ্ট