সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের ১৯ জন চিকিৎসক সহ ১৪ জন নার্স ও ১১ জন স্টাফ কোয়ারান্টাইনে

১৩ এপ্রিল, ২০২০
প্ল্যাটফর্ম প্রতিবেদকঃ আজ সোমবার সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডে করোনায় আক্রান্ত এক নারী সনাক্ত হন। এ প্রেক্ষিতে ওই হাসপাতালের ১৯ চিকিৎসকসহ ৪৪ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত প্রসূতির সংস্পর্শে এসেছিলেন তারা। এদের মধ্যে চিকিৎসক ছাড়াও ১৪ জন সেবিকা ও ১১ জন হাসাপাতালের স্টাফ রয়েছেন।


এই তথ্য নিশ্চিত করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় বলেন, “কোয়ারেন্টিনে যাওয়া চিকিৎসকসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মীরা এখন পর্যন্ত সুস্থ আছেন। তবে তাদেরও পরীক্ষা করা হবে। এরা সকলেই চিকিৎসার প্রয়োজনে আক্রান্ত নারীর সংস্পর্শে গিয়েছিলেন বলে জানান তিনি। তবে প্রসূতি ওয়ার্ডের সেবার তেমন প্রভাব পড়বে না। এই ওয়ার্ডে সেবা অব্যাহত থাকবে।”

উল্লেখ্য, সোমবার সকালে সুনামগঞ্জের সদরের এক নারী করোনাক্রান্ত বলে নিশ্চিত করা হয়। গত শুক্রবারে ওই নারী সিজারের মাধ্যমে সন্তানের জন্ম দেন। ওই নারীর শরীরে করোনার উপসর্গ থাকায় তার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষায় ধরা পড়ে তিনি করোনাক্রান্ত।

আক্রান্ত নারীকে প্রথম থেকেই ওসমানী হাসপাতালে আলাদা করে রাখা হয়েছিলো জানিয়ে তিনি বলেন, “এতে করে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অন্য নারীদের আক্রান্ত হওয়ার কোনো শঙ্কা নেই।”
আক্রান্ত নারীর স্বামী কিছুদিন আগে নারায়নগঞ্জ থেকে বাড়ি ফিরেছেন বলে জানা গেছে।

স্টাফ রিপোর্টার/শরিফ শাহরিয়ার

Fahmida Hoque Miti

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Next Post

আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক হোন, করোনা ভাইরাসে এক শিশুর মৃত্যু

Mon Apr 13 , 2020
১৩ এপ্রিল, ২০২০ গত রবিবার রাত ৩ টায় চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে মৃত্যু হয় এক শিশুর, বাংলাদেশে এই প্রথম কোনো শিশুর মৃত্যু হয় করোনা ভাইরাসে যার বয়স ১০ বছরের নিচে। শিশুটির মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন, চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন শেখ ফজলে রাব্বি। শিশুটির নাম আরিফুল ইসলাম। বয়স ৬ বছর। সে হাইদগাঁও ইউনিয়নের […]

সাম্প্রতিক পোষ্ট