মাহমুদুর রহমানঃসংক্রামক ব্যাধি মোকাবেলায় বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেওয়া এক সেনাপতির আখ্যান

1
নিউজটি শেয়ার করুন

mahmudur rahman

বাংলাদেশ রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইন্সটিটিউট বা আইইডিসিআর-এর পরিচালক অধ্যাপক মাহমুদুর রহমান। বাংলাদেশে সংক্রামক ব্যাধি প্রতিরোধে তিনি এবং তার প্রতিষ্ঠান অনন্য ভুমিকাপালন করছে। অধায়পক মাহমুদুর রহমান প্রায় ১১ বছর ধরে আইইডিসিআর এবং জাতীয় ইনফুয়েঞ্জা সেন্টারের পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন। এর আগে তিনি ১৯৯৬ থেকে ২০০২ পর্যন্ত জাতীয় প্রতিরোধক ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানে(নিপসম) রোগতত্ত্বের সহযোগী অধ্যাপক এবং ২০০২ থেকে ২০০৪ পর্যন্ত  একই বিভাগের বিভাগীয় প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৪ সালের ৭ অক্টোবর তিনি আইইডিসিআর-এর পরিচালক পদে নিযুক্ত হন। আইইডিসিআরকে তিনি একটি আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন প্রতিষ্ঠানে রূপ দেন।

অধ্যাপক মাহমুদুর রহমান চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেন। ১৯৮৮ সালে থাইল্যান্ডের মাহিদল ইউনিভার্সিটির আসিয়ান ইন্সটিটিউট অফ হেলথ ডেভেলপমেন্ট থেকে প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা ম্যানাজমেন্টের উপর মাস্টার্স অর্জন করেন। ১৯৯৬ সালে ক্যামব্রিজ ইউনিভার্সিটি থেকে পিএইচডি করেন রোগতত্ত্বে।

তিনি তাঁর ক্যারিয়ারের পুরোটাই জনস্বাস্থ্য আর রোগতত্ত্বে গবেষণায় ব্যয় করেছেন।  সংক্রামক ব্যাধি এবং অসংক্রামক ব্যাধির সারভেইল্যান্স, এবং জনস্বাস্থ্যের নীতিনির্ধারণ এইসব বিষয়ে তার গবেষণা রয়েছে।

বাংলাদেশের জাতীয় ইনফুয়েঞ্জা সেন্টার, নিপাহ ভাইরাস ল্যাবরেটরি, ওয়েব ভিত্তিক সারভেইল্যান্স প্রতিষ্ঠা এবং এইচ১এন১/সোয়াইন ফ্লু প্যানডেমিক মোকাবেলায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। যেকোনো সংক্রামক ব্যাধির মহামারীর খবর আসলেই আইইডিসিআর-এর নিবেদিত প্রাণ কর্মীরা তার নেতৃত্বে গবেষণায় ঝাঁপিয়ে পড়েছে।

তিনি Journal of Preventive and Social Medicine এর ম্যানাজিং এডিটর হিসেবে দায়িত্বপালন করেছেন। ২০০৫ সালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার International Health Regulation এর সদস্য ছিলেন। জেনেভার হেডকোয়ার্টারে Pandemic Influenza Review Committee এর সদস্য ছিলেন। এছাড়া মধ্যপ্রাচ্যে উদ্ভূত MERS ভাইরাস প্রতিরোধে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গঠিত জরুরী কমিটির সদস্য ছিলেন তিনি।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ট্রপিক্যাল ডিজিজ রিসার্চের কালাজ্বর নির্মূলে গঠিত টেকনিক্যাল কমিটির সদস্য তিনি। এছাড়া তিনি নানা জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক কমিটিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে চলেছেন।

অধ্যাপক রহমান “Text Book of Community Medicine and Public Health” এর সম্পাদক। তিনি জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক জার্নালে ৯০ টির বেশি গবেষণাপত্র প্রকাশ করেছেন।

rajat

One thought on “মাহমুদুর রহমানঃসংক্রামক ব্যাধি মোকাবেলায় বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেওয়া এক সেনাপতির আখ্যান

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Next Post

যে ভাবে বুঝবেন খবরটি ভুয়া!

Fri Jun 3 , 2016
লিখেছেন ঃ ডাঃ মোঃ মারুফুর রহমান অপু, চিকিৎসক ও জনস্বাস্থ্য গবেষক ব্যাপারটা নতুন না তবে ইদানিং অনেক বেশি দেখছি। দুদিন পরপর চমকপ্রদ আকর্ষণীয় শিরোনামে নিত্য নতুন তথ্য বিশেষ করে স্বাস্থ্য বিষয় টোটকা নিউজফিডে দেখতে পাই যেগুলো ছোট ছোট বাচ্চা কাচ্চা বা সংশ্লিষ্ট বিষয়ে জড়িত নয় এমন মানুষ থেকে শুরু করে উচ্চশিক্ষিত প্রফেশনালরাও […]

Platform of Medical & Dental Society

Platform is a non-profit voluntary group of Bangladeshi doctors, medical and dental students, working to preserve doctors right and help them about career and other sectors by bringing out the positives, prospects & opportunities regarding health sector. It is a voluntary effort to build a positive Bangladesh by improving our health sector and motivating the doctors through positive thinking and doing. Platform started its journey on September 26, 2013.

Organization portfolio:
Click here for details
Platform Logo