• ইভেন্ট নিউজ

April 8, 2016 3:36 pm

প্রকাশকঃ

HALT THE RISE, BEAT DIABETES ( ডায়াবেটিস সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি ও প্রতিরোধ ) এই বিষয়কে সামনে রেখে গত ৭ই এপ্রিল পালিত  হল বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস। 

সেমিনারে, বক্তব্য রাখেন দেশের সকল স্বনামধন্য চিকিৎসকগণ । তারা হলেন,

প্রফেসর শুভাগত চৌধুরী ( ডিরেক্টর, ল্যাব সার্ভিস, বারডেম জেনারেল হসপিটাল )।

ডা. শাহজাদা সেলিম ( অ্যাসিস্টেন্ট প্রফেসর, এন্ডোক্রিনোলজিস্ট, বি.এস.এম.এম.ইউ )

প্রফেসর এম.এ তাহের (নিউক্লিয়ার মেডিসিন এবং থাইরয়েড স্পেশালিষ্ট)

এছাড়া ছিলেন, প্রফেসর খাজা নাজিমউদ্দিন ( ইন্টার্নাল মেডিসিন, বারডেম ) এবং ডা. ফারজানা ইব্রাহিম ( প্লাস্টিক সার্জারি, বারডেম )।

12969429_10206137929555097_836432972_n

সেমিনারের  শুরুতে ডক্টরোলার সি.ই.ও,  মো. আব্দুল মতিন ইমন বলেন, আমাদের দেশে রোগীরা সঠিক সময়ে ডাক্তারের কাছে যায়না, খোঁজ পায়না এবং চিকিৎসা নিতে বিলম্ব করে। ফলাফল রোগের বিস্তৃত আকার ধারণ, তাই ডক্টরোলা উদ্যোগ নেয়, টেলিফোন বা অনলাইনের মাধ্যমে রোগীদের বিভিন্ন সমস্যা দূর করার ( রোগীদের সমস্যা নিয়ে আলোচনা করা, ডাক্তারদের অ্যাপয়নমেন্ট করে দেওয়া ইত্যাদি )

প্ল্যাটফর্মের পক্ষ থেকে ডা. আহমেদুল হক কিরণ বলেন, প্ল্যাটফর্মের সূচনা হয় মেডিকেলের শিক্ষার্থীদের হতাশা একে অন্যের সাথে শেয়ার করার মাধ্যম হিসেবে, পরবর্তীতে এটা এমন একটি সংগঠনের রূপ নেয়, যেখানে ডাক্তার, মেডিকেল স্টুডেন্টসদের অসুবিধাসমূহ আলোচনা, তাদের দাবি-দাওয়া পূরণের মাধ্যম, ক্যারিয়ার সম্পর্কে আলোচনা, বিভিন্নভাবে একে অপরকে সহযোগিতা করা হয়। প্ল্যাটফর্ম থেকে ৬ মাস পরপর একটি পত্রিকা বের হয়, যার ৬ ষ্ঠ এডিশন সর্বশেষ বের হয়েছে। প্ল্যাটফর্মের ফেসবুক পেইজ এবং গ্রুপে বর্তমানে মেম্বার সংখ্যা প্রায় ৩০,০০০।

12966311_10206137929995108_190151309_n

এবারের স্বাস্থ্য দিবসের মূল স্লোগান ডায়বেটিস নিয়ে  আলোচনা শুরু হয়, ডা. শাহজাদা সেলিম  এর বক্তব্য দিয়ে। তিনি বলেন,প্রথমেই আমি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি,  ডক্টরোলা এবং প্ল্যাটফর্মকে যারা এতসুন্দর একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছেন। যেখানে একই সাথে ডাক্তার, স্টুডেন্ট এবং রোগী উপস্থিত থেকে কোন রোগ সম্পর্কে আলোচনা করার সুযোগ পাচ্ছে।তিনি ডায়াবেটিস এমন একটি রোগ, যা একবার হলে সারে না। একে নিয়ন্ত্রণ করা যায় কিন্তু পুরোপুরি সারানো যায়না। আমাদের দেশের মানুষের মধ্যে ডায়াবেটিস সম্পর্কে সচেতনতা নেই। কারণ হচ্ছে, মানুষের সচেতনতা এবং মেডিকেল রিসার্চের অভাব।গবেষণায় দেখা গেছে, বাংলাদেশে এ পর্যন্ত ১,২৯,৩২৫ লোক ডায়াবেটিসের কারনে মারা গিয়েছে। ঙ্গহানির (Amputation, Leg Amputation) ৬০ শতাংশ কারণ হচ্ছে ডায়বেটিস। এছাড়া ছানি পড়া রোগের ৩/৪ ভাগ কারণ এবং ডায়ালাইসিসের ৮০ শতাংশই হচ্ছে ডায়বেটিসের কারণ।” এছাড়া তিনি ডায়বেটিসের লক্ষন,কাদের বেশি হচ্ছে এসকল বিষয় নিয়েও আলোচনা করেন।

এরপর শুভাগত স্যারের বক্তব্য শুরু হয়, চমৎকার একটি গানের কথা “এই শিকল পড়ার ছল যে আমার শিকল পড়ার ছল ” দিয়ে, “একবার বিবাহের মাধ্যমে শৃঙ্খলে আবদ্ধ হওয়া, আরেকবার শাসনে। কিন্তু শাসনে আবদ্ধ হয়না কেউই ! যেমন, বসে বসে টিভি দেখতে মানা করে কিন্তু দেখি, হাঁটতে বলে কিন্তু হাঁটি না, বেশী খেতে মানা করে কিন্তু খাই ! আমরা শৃঙ্খলে আবদ্ধ হতে চাইনা।
Great Professor Ibrahim Sir বলতেন, ডায়াবেটিসকে রুখতে হবে, এটা চিকিৎসা করে সারিয়ে ফেলা যায়না।তাই মানুষকে জানাতে হবে যে, ডায়াবেটিস কি, কিভাবে একে কন্ট্রোল করা যায় এবং সুস্থভাবে জীবন যাপন করা যায়।”

স্যার আরো বলেন, পরিমিত আহারের কথা। কম খাবেন, বেশী বাঁচবেন, সুস্থ থাকবেন।মিষ্টি জাতীয় খাবার বর্জন করতে হবেনা কিন্তু বেশী খাওয়া যাবেনা ( মাসে একবার )।

 

সেলিম স্যার এবং শুভাগত স্যারের বক্তব্যের পরই আসেন, ডা. ফারজানা ইব্রাহিম। যিনি একদম ছোট কথায় বলেন, ডায়াবেটিসের জটিলতা হলে তখন ক্ষেত্রবিশেষে সার্জারি করা লাগে ( পায়ের ক্ষত, অঙ্গহানি, Diabetic foot )।এরপর তিনি Sir Ibrahim এর উক্তিটি বলে বক্তব্য শেষ করেন, “শুধু হাঁটলেই হবেনা, ঘামতে হবে” ।

এরপর প্রফেসর খাজা নাজিমউদ্দিন বলেন, সুশৃঙ্খল জীবন যাপন করুন, ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করুন। ১৯৫৪ সনে Prof. Ibrahim ৩৬৪ স্কয়ার ফিটের টিন শেড ঘরে ডায়াবেটিস স্ক্রিনিং এবং গবেষণা শুরু করেন। আর এখন ১০৬ টা অ্যাফ্লিয়েটেড ডায়াবেটিস চেম্বার আছে।
সবশেষে বক্তব্য দেন এম.এ তাহের স্যার।এত সুন্দর অনুষ্ঠান আয়োজন করার জন্য উনি সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বক্তব্য শুরু করেন। তিনি বলেন, ডায়াবেটিস এর প্রতি সচেতনতা বাড়াতে হবে, পাশাপাশি থাইরয়েড এর সমস্যাগুলোতেও নজর দিতে হবে।

12968573_10206137929595098_1877587318_n

আলোচকদের বক্তব্য শেষেই শুরু হয় প্রশ্ন-উত্তর পর্ব । যেখানে রোগী, শিক্ষার্থী এবং ডাক্তাররা তাদের বিভিন্ন সমস্যা আলোচনা করেন আলোচকদের সাথে।

ডায়াবেটিস সেমিনারের পরপরই, ক্যান্সার সচেতনতা কুইজের বিজয়ী, আয়োজক এবং অংশগ্রহণকারীদের পুরষ্কার বিতরণ করার মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

 

 

Supported by : PLATFORM
Powered by : Doctotola
Media partner : Colors FM

তথ্য ঃ  প্ল্যাটফর্ম প্রতিবেদক, শায়েরী রায় পূর্ণিমা
ছবি ঃ আসিফ হোসেন

 

শেয়ার করুনঃ Facebook Google LinkedIn Print Email
পোষ্টট্যাগঃ world health day 2016,

পাঠকদের মন্তব্যঃ ( 0)




Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Advertisement
Advertisement
.