কোভিড-১৯ চিকিৎসায় ‘রেমডিসিভির’ ঔষধে আশার আলো খুঁজে পেলো আমেরিকা!

প্ল্যাটফর্ম নিউজ, বৃহস্পতিবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২০

সারা বিশ্ব যখন প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে একাধিক ঔষধ নিয়ে গবেষণা চালাচ্ছে, তখন যুক্তরাষ্ট্রে তৈরি ‘রেমডিসিভির’ নামক ওষুধ নিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব অ্যালার্জি এন্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (NIAID)। প্রতিষ্ঠানের পক্ষে এর পরিচালক ডা. এন্থনি ফৌসি ‘রেমডিসিভির’ নামক ঔষধের কার্যকারিতা নিয়ে আশার কথা জানান দিয়েছেন।

সংক্রামক ব্যাধি নিয়ে কাজ করা বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ গবেষক ডা. এন্থনি ফৌসি তার বক্তব্যে বলেন, ‘NIAID পরিচালিত ২১ শে ফেব্রুয়ারী থেকে শুরু করা র‍্যান্ডোমাইজড প্লেসিবো কন্ট্রোলড ট্রায়ালে প্রাথমিকভাবে যে ফলাফল দেখা হয়েছে তাতে এই ওষুধের ব্যাপারে তিনি আশাবাদী।

বিজ্ঞানীরা এই ট্রায়াল নিয়ে এখনো কাজ করছেন। যথাযথ প্রক্রিয়া শেষ করে সকল তথ্য পাওয়া গেলে তবেই নিশ্চিত করে মন্তব্য করা যাবে। এখন পর্যন্ত যেটুকু তথ্য হাতে এসেছে তাতে দেখা যাচ্ছে এটি কোভিড-১৯ হতে সুস্থ হবার জন্য প্রয়োজনীয় সময় এবং মৃত্যুহার উভয়কেই কমিয়ে আনে।

রেমডিসিভির মূলত একটি পরীক্ষামূলক নিউক্লিওটাইড (এডিনোসিন) এনালগ যা ইবোলা রোগের চিকিৎসা করার উদ্দেশ্যে আবিষ্কার করে যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি ‘গিলিয়েড’।

পৃথক আরেক বিবৃতিতে গিলিয়েডের পক্ষ থেকে বলা হয় যে তারা NIAID কতৃপক্ষ যে ট্রায়াল চালাচ্ছে তাতে প্রাথমিকভাবে সফলতা এসেছে বলে তারা জেনেছেন এবং শীঘ্রই তারা NIAID এর পক্ষ থেকে আরো বিস্তারিত জানবেন। ভিন্ন বিবৃতিতে তারা আরো জানায় যে তারা তাদের নিজেদের তত্বাবধানে পরিচালিত প্রথম open-label Phase 3 SIMPLE ট্রায়ালের ফলাফল হাতে পেয়েছে। এই ট্রায়ালে তারা দেখেছে যে রেমডেসিভির ব্যবহার করে ৫ দিন বা ১০ দিনের চিকিৎসায় উভয় ক্ষেত্রেই সমান ক্লিনিক্যাল ফলাফল পাওয়া যাচ্ছে। এই ট্রায়ালে প্রায় ৩৯৭ জন রোগী অংশ নেয়। একই ধরনের দ্বিতীয় আরেকটি ট্রায়াল সারা বিশ্বব্যাপী প্রায় ১৮০ টি ভিন্ন ভিন্ন প্রতিষ্ঠানে প্রায় ৫৬০০ রোগীকে নিয়ে করা হচ্ছে। এর মধ্যে প্রথম ৬০০ জন রোগীর ফলাফল মে মাসের শেষ দিকে পাওয়া যাবে বলে তারা ধারণা করছেন।

এই বিবৃতিতে তারা মত প্রকাশ করেন যে এখনো বিশ্বের কোথাও এমনকি যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন এখনও করোনাভাইরাস চিকিৎসায় রেমডেসিভির ব্যবহারের কোন অনুমতি দেয়নি। NIAID এবং তাদের নিজেদের ট্রায়ালের মিলিত ফলাফল ভালো হলে তারা শীঘ্রই অনুমতি পাবে বলে আশা রাখে। নিউ ইয়র্ক টাইমসও এক খবরে জানাচ্ছে হয়ত খুব শীঘ্রই এই ওষুধ ব্যবহারের অনুমতি দেওয়ার পরিকল্পনা করছে যুক্তরাষ্ট্রের সরকার। এদিকে অবশ্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ( WHO) বলছে, তারা রেমডিসিভির নিয়ে খুব দ্রুতই কোনো মন্তব্য করতে চাচ্ছে না।

তবে সামগ্রিকভাবে ইতিমধ্যেই এই ঔষধ আবিষ্কারের সুফল পেতে শুরু করেছে প্রতিষ্ঠানটি। প্রতিষ্ঠান ও এর গবেষকদের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এতে একদিনেই কোম্পানির শেয়ার মূল্য বেড়েছে প্রায় ২৭ শতাংশ।

সোর্স- The Guardian
sph news

নিজস্ব প্রতিবেদক / আশরাফ মাহাদী

Platform

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Next Post

করোনা জয় করে কাজে ফিরলেন চিকিৎসক

Fri May 1 , 2020
প্ল্যাটফর্ম নিউজ, ০১ মে ২০২০, শুক্রবার: করোনাভাইরাসের কবল থেকে মুক্ত হয়ে আবারো কাজে যোগ দিয়েছেন রাজধানীর পপুলার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের আবাসিক চিকিৎসক মাহমুদুল ইসলাম। গত ২ এপ্রিল (বৃহস্পতিবার) করোনা উপসর্গ থাকা এক বৃদ্ধ রোগীকে চিকিৎসাসেবা দিয়েছিলেন ডা. মাহমুদুল। পরবর্তীতে নিজের শরীরে করোনার লক্ষণ দেখা দিতে শুরু করলে তিনি […]

সাম্প্রতিক পোষ্ট