• মেডিকেল ডকুমেন্টারি

October 31, 2015 1:27 am

প্রকাশকঃ

নাম তার “BIVACOR” । কৃত্রিম হৃদযন্ত্র কোনওরকম স্পন্দন ছাড়াও রক্ত পাম্প করতে সক্ষম হবে। অস্ট্রেলিয়ার একদল গবেষক বিশ্বের প্রথম এই কৃত্রিম হৃদযন্ত্র আবিষ্কার করলে।

ডিভাইসটি বানিয়েছেন ব্রিসবেনের ডা: ড্যানিয়েল টিমস। ২০০১ সালে কুইন্সল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনার সময় এই নিয়ে কাজ শুরু করেন তিনি। বর্তমানে কৃত্রিম হৃদযন্ত্রটি পরীক্ষামূলকভাবে মানবদেহে প্রতিস্থাপিত করা হয়েছে।

ছবিতে বায়ে প্রথমেই দেখা যাচ্ছে ডাঃ ড্যানিয়েল  টিমস কে এবং সাথে তার আবিষ্কারক দল

ছবিতে বায়ে প্রথমেই দেখা যাচ্ছে ডাঃ ড্যানিয়েল টিমস কে এবং সাথে তার গবেষক দল

সবথেকে মজার ব্যপার হল মানুষটা,ডাঃ হয়েও মেডিসিন বিসয়ে পিইএচডি না করে, করেছেন মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং এ । তার ডক্টরাল থিসিস এর শিরোনামটি ছিল, “Design, development and evaluation of centrifugal ventricular assist devices.”

এই কৃত্রিম হৃদযন্ত্রের মধ্যে রয়েছে একটি ছোট ব্লেডওয়ালা ডিস্ক, যেটি প্রতি মিনিটে কোনও স্পন্দন ছাড়াই ২,০০০ বার পূর্ণ আবর্তে ঘুরে রক্ত পাম্প করবে। ম্যাগনেটিক লেভিটেশন ব্যবহার করায় কৃত্রিম হৃদযন্ত্রটি বহুদিন কাজ করতে সক্ষম। টানা ১০ বছর কাজ করতে সক্ষম এটি।

আগামী তিন বছরের মধ্যে মানবদেহে এই কৃত্রিম হৃদযন্ত্র প্রতিস্থাপন করা যাবে বলে আশাবাদী গবেষকরা।

“BIVACOR” এর একটি ন্মুনা ভিডিও আকারে দেওয়া হল—(ক্লিক করুন নিচের লিঙ্কটি)

শেয়ার করুনঃ Facebook Google LinkedIn Print Email
পোষ্টট্যাগঃ “BiVACOR Artificial Heart invention,

পাঠকদের মন্তব্যঃ ( 4)




Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Advertisement
Advertisement
.