রাজশাহী মেডিকেল কলেজে প্রথমবারের মত স্বাস্থ্য বিষয়ক ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ফিল্ম সোসাইটি দীর্ঘ চার বছর ধরে স্বাস্থ্য বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। রামেকের প্রিয় শিক্ষকদের আন্তরিক সহযোগিতার কারণে এ ফিল্ম সোসাইটির পথচলা এখনো থেমে যায়নি। বিশেষ করে অধ্যক্ষ মহোদয় ডা. নওশাদ আলী স্যার এবং হেপাটোলজি বিভাগের প্রধান ডা. হারুন অর রশিদ স্যার এর সরাসরি পৃষ্ঠপোষকতায় হেলথ ফিল্ম বানানোর এ ধারাবাহিকতা বজায় রয়েছে খুব সুন্দরভাবে।

ডা. হারুন অর রশিদ স্যার প্রায়ই একটা কথা বলেন যে ‘আমি যা বলতে চাই, আমার জীবদ্দশায় আর কতজন মানুষকে আমার কথা বলতে পারবো বলো। কিন্তু যদি আমার ভাবনাগুলো ফিল্মের মাধ্যমে বলি তাহলে অল্প সময়ে অনেক মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে পারবো।’

আমি নিজেও তাই বিশ্বাস করি। এবং এই বিশ্বাস করে আমি ভুল করিনি। ফিল্ম সোসাইটির কাজ শুরু করার পর থেকে আমার অনেক শ্রদ্ধাভাজন শিক্ষকেরা ফিল্ম সোসাইটির সদস্যদের ডেকে পাঠিয়েছেন। স্বাস্থ বিষয়ক ফিল্ম বানানোর আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। কিন্তু সময়ের অভাবে এতো কাজ একা করা সম্ভব হয়ে ওঠেনি।
যারা আমাদের ফিল্ম সোসাইটির কার্যক্রম সম্পর্কে এখনো জানেন না তাদের অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে আমরা জন্ডিস বিষয়ে সচেতনতার জন্য বানিয়েছি গায়ে হলুদ, ফ্যাটি লিভার ডিজিজ বিষয়ে বিষাদবরণ, হেপাটাইটিস সি বিষয়ে অরুণ প্রাতের তরুণ দল, এন্টিবায়োটিক রেজিস্ট্যান্স বিষয়ে একটি আত্মহননের গল্প, ভেসিকোভ্যাজাইনাল ফিসচুলা বিষয়ে পুনর্জন্ম। এছাড়া হেপাটাইটিস বি বিষয়ে আছে সিগন্যাল ওয়ান এবং রক্তদান বিষয়ে রক্তদানি।
এবং থ্যালাসেমিয়া বিষয়ক ছবি ‘কেন মিছে নক্ষত্রেরা’র কাজ চলছে।

যাই হোক, চলতি বছরের মার্চের শেষে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ফিল্ম সোসাইটি ইন্টার মেডিকেল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল আয়োজন করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। যাতে করে বাংলাদেশের অন্যান্য মেডিকেল কলেজে যারা আগ্রহী আছে, যারা নিজেদের সাধ্যের মধ্যেই একটু ভিন্ন কিছু করতে চায়। মানুষের জন্য কাজ করতে চায়। মানুষকে নিয়ে ভাবে।
আমি প্ল্যাটফর্ম এর মাধ্যমে সেসব মানুষকেই খুঁজে বের করতে চাই। সবকিছু চোখের পলকে চেঞ্জ করে ফেলার মতো বিরাট উদ্দেশ্য আমাদের নেই। তবে বিভিন্ন প্রিভেন্টেবল ডিজিজ নিয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ যে ক্ষুদ্র চেষ্টা করে যাচ্ছে সে মেঠোপথের নতুন পথচারীর খোঁজেই এ আয়োজন। বাংলাদেশের সকল সরকারী বেসরকারী মেডিকেল ডেন্টাল কলেজের আগ্রহী ছাত্রছাত্রীদের স্বতফুর্ত অংশগ্রহণ ছাড়া এ প্রচেষ্টা কখনোই সফল হবে না।

ফিল্ম জমা দেয়ার শেষ তারিখ ১০ মার্চ কিন্তু কারো যদি আরো কিছু সময় লাগে ফিল্ম রেডি করতে তবুও সমস্যা নাই। মার্চের ২০ তারিখ পর্যন্ত ফিল্ম জমা দেয়া যাবে। ফেস্টিভ্যাল এর চুড়ান্ত তারিখ মার্চের কুড়ি তারিখের আগে জানানো হবে।

ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ইভেন্ট লিংকঃ

ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ইভেন্ট লিংক

নাহিদ হাসান
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ

ওয়েব টিম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Next Post

চিকিৎসক জীবিকার তাগিদে উবার চালকঃ নিয়মের মধ্যেই রেসিডেন্টদের সমস্যার সুরাহা

Wed Feb 27 , 2019
ডা. আতিকুজ্জামান ফিলিপ এর প্ল্যাটফর্ম পোস্ট অনুসারে। সেদিন রাতে প্লাটফর্মে ছোটভাই মোহিব নীরব’র শেয়ার করা পোস্টটি অন্যান্য অনেক চিকিৎসকের মতো আমারো নজর কেড়েছে। পোস্টটি পড়ে অন্য অনেকের মতো আমিও হতবিহ্বল ও বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছিলাম, আমার অজান্তেই আমারও চোখের কোনটা অন্য অনেকের মতোই নোনাজলে ভিজে উঠেছিলো। অনেকের মতো আমিও কখনো ভাবতেই […]

সাম্প্রতিক পোষ্ট