• ক্যাম্পাস নিউজ

February 23, 2017 12:01 am

প্রকাশকঃ

 

16901733_1277841305643535_1815484629_n

১৯৫২ সালের ২১ শে ফেব্রুয়ারিতে যারা বাংলা ভাষার জন্য জীবন দিয়েছিলেন সেইসকল ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানাতে, প্রতিবছরের মত এবারও বাংলাদেশের বিভিন্ন মেডিকেল এবং ডেন্টাল কলেজে  অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল ।
এর মধ্যে সাতক্ষিরা মেডিকেল মেডিকেল কলেজের শিক্ষক, শিক্ষিকা আর শিক্ষার্থীদের আয়োজন ছিল অন্যরকম।

২১ তারিখ মধ্যরাত ১২:০১ মিনিটে, সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজের  অধ্যক্ষ ডা:কাজী হাবিবুর রহমান  শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।
এছাড়া শিক্ষক-শিক্ষিকা,ছাত্রছাত্রী ও কর্মচারীবৃন্দের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

16900103_1277841302310202_332634178_n
পুষ্পস্তবক কর্মসূচির পর ক্যাম্পাস প্রাঙ্গনে একটি র‍্যালির আয়োজন করা হয়। র‍্যালি শেষে অধ্যক্ষের স্বাক্ষর এর মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীদের সম্পাদনায় ‘বিজয়-৫২’ নামক দেয়াল পত্রিকাটি উম্মোচন করা হয়।

16901729_1277841225643543_1134242367_n

দেয়াল পত্রিকাটির প্রধান উপদেষ্টা ছিলেন অধ্যক্ষ ডা: কাজী হাবিবুর রহমান ।উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য ছিলেন ডা: মো: নাসির উদ্দিন গাজী স্যার,ডা: হরষীত চক্রবর্তীসহ আরো অনেকে।

সম্পাদক ছিলেন ৩য় বর্ষের ছাত্র মো:আজমল হোসেন ও সহ:সম্পাদক ছিলেন ৩য় বর্ষের ছাত্র বেলায়েত হোসেন রাজু।

গ্রাফিক্স ডিজাইন এবং কারিগরী সহযোগীতায় ছিলেন ৩য় বর্ষের সাকিল,২য় বর্ষের   ওজস্বিনী,অর্নব,সাঈদ,সজীব,হিয়া,রসিফ,মাহমুদ,কামরান,সোহাগ,আলবী এবং ১ম বর্ষের ফারহানা,সায়মা,মেঘনা,অঙ্কিতা,রিচা,আফজাল,সাওন,মাহমুদুল,নন্দিতাসহ আরো অনেকে।

 

সম্পাদক আজমল হোসেন বলেন,’দেয়াল পত্রিকাটিতে কবিতা,ছোট গল্প এবং চিত্রাঙ্কনের মাধ্যমে ভাষা আন্দোলনের পটভূমি এবং ভাষা শহীদদের প্রতি ভালোবাসা,শ্রদ্ধা খুব চমৎকারভাবে ফুটে উঠেছে।’

শিক্ষকদের গঠনমূলক বক্তব্য শেষে সমাপনী বক্তব্যে ছাত্রছাত্রীদের উদ্দেশ্যে অধ্যক্ষ  বলেন,
বাংলার প্রতিটি বর্ণমালায় ভাষা শহীদদের রক্ত লেগে আছে।রক্ত হয়ত পুরানো হয়ে গেছে কিন্তু যেন মুছে না যায়।’

সবশেষে ভাষা শহীদদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি করা হয়।

 

তথ্য ও ছবি ঃ আজমল হোসেন, প্ল্যাটফর্ম প্রতিনিধি, সাতক্ষিরা মেডিকেল কলেজ।

শেয়ার করুনঃ Facebook Google LinkedIn Print Email
পোষ্টট্যাগঃ সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ,

পাঠকদের মন্তব্যঃ ( 0)




Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Advertisement
Advertisement
.