বর্ষীয়ান নেতা ডা:মোজাম্মেল হোসেনের মৃত্যুতে বাগেরহাটে শোকের ছায়া।

 

 

১০ই জানুয়ারি, শুক্রবার, ২০২০

ডা: মোজাম্মেল হোসেন আর নেই, শুক্রবার রাত পৌনে ১টায় ঢাকা বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহির রাজিউন)।
ডা:মোজাম্মেল হোসেন বাগেরহাট-৪ (মোরেলগঞ্জ-শরণখোলা) আসনের সংসদ সদস্য, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, পাঁচবারের এমপি ও সাবেক মন্ত্রী ছিলেন।
তার মৃত্যুর খবর শুক্রবার সকালে বাগেরহাটে পৌঁছলে সর্বত্র শোকের ছায়া নেমে আসে।
১৯৪০ সালের ১ অক্টোবর মোড়েলগঞ্জ উপজেলার কচুবুনিয়া গ্রামের বর্ধিষ্ণু পবিবারে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম হাজী রহমত আলী,মা ময়ফুল বিবি। মৃত্যুর আগে তিনি একমাত্র পুত্রসন্তান খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর মাহমুদ হোসেন সহ বহুগুণগ্রাহী রেখে গেছেন।
ডা:মোজাম্মেল হোসেন বাগেরহাটের খুবই জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব। তিনি সংসদ সদস্য হিসেবে পাঁচবার জয়লাভ করেন। ১৯৫৮ সালে তিনি এসএস সি, ১৯৬১ সালে এইচ এস সি, ‘৬৪ সালে চিটাগং মেডিকেল কলেজ থেকে এম বি বি এস পাস করেন।
১৯৭১ সালে তিনি মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেন। ১৯৭৩ সালে মোড়েলগজ্ঞ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। পর পর দুই বার তিনি এই পদে নির্বাচিত হন। ১৯৭৯ সালে বর্ষীয়ান এই নেতা বাগেরহাট মহাকুমা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হয়ে অদ্যাবধি তিনি এই পদে ছিলেন।
বাগেরহাটের সাধারণ মানুষের কাছে ডা: মোজাম্মেল হোসেন এক পরম অভিভাবক হিসেবে পরিচিত হয়ে ওঠেন।
১৯৯১ সালে বাগেরহাট-১ আসন থেকে তিনি জয়লাভ করে প্রথমবার বাংলাদেশ জাতীয় সংসদে বাগেরহাটের প্রতিনিধিত্ব করেন। পরে তিনি সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তার সময়েই বিধবাভাতা, দারিদ্র্য ভাতা, বয়স্কভাতাসহ দেশের সাধারণ মানুষের কল্যাণকর অনেক সুযোগ-সুবিধা প্রদান শুরু হয়।
ত্যাগী এই নেতা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অত্যন্ত কাছের মানুষ হিসেবে পরিচিত ছিলেন। আজ শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর বাগেরহাট শেখ হেলাল উদ্দিন স্টেডিয়ামে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।ডা:মোজাম্মেেল হোসেনের মৃত্যুতে প্ল্যাটফর্ম পরিবার শোকাহত।

 

নিজেস্ব প্রতিবেদক
প্ল্যাটফর্ম

প্ল্যাটফর্ম স্টাফ রিপোর্টার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Next Post

নিপাহ রোগ প্রতিরোধ ও সচেতনতা বৃদ্ধিতে যা করনীয়

Fri Jan 10 , 2020
  ১০ জানুয়ারি ২০২০ নিপাহ রোগ (নিপাহ ভাইরাস) কোনো আতংক নয়। এতে প্রয়োজন উপযুক্ত সতর্কতা ও সচেতনতা। নিপাহ একটি ভাইরাসজনিত (নিপাহ ভাইরাস) সংক্রামক রোগ। এই ভাইরাসটি সাধারণত বাদুড় থেকে মানুষে সংক্রমিত হয়। সাধারণত ফল আহারী বাদুড় এই ভাইরাসের প্রধান বাহক। তবে, যেহেতু আমাদের দেশে শীতকালে খেজুরের রস সংগ্রহ করা হয় […]

সাম্প্রতিক পোষ্ট