• প্রথম পাতা

May 24, 2019 4:01 am

প্রকাশকঃ

প্ল্যাটফর্ম রিপোর্টঃ ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের ইন্টার্ন চিকিৎসক এবং কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ডা. আদনান ইব্রাহীম এবং সভাপতি ডা. রায়হানুল ইসলাম এবং সদস্য মো. রেদোয়ান খান এর উপর জেলা ছাত্রলীগের কয়েকজনের ন্যাক্কারজনক হামলার ঘটনায় সহ-সভাপতি সোহাগ সাইফুল্লাহ (সহ-সভাপতি, ফরিদপুর জেলা ছাত্রলীগ) এবং এইচ.এম. মেজবাহ উদ্দিন (উপ-পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক, ফরিদপুর জেলা ছাত্রলীগ) কে সাময়িক ভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।

২৪ মে, ২০১৯ প্রকাশিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ১৮/৫/২০১৯ তারিখে ফরিদপুরের ভাঙা রাস্তার মোড় এলাকায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের নেতাকর্মীর উপর হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করেন, ছাত্র লীগ পরিবার। হামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুই জন অভিযুক্তকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

কেন্দ্রীয় সংসদের জরুরি সভা মোতাবেক,
রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং গোলাম রাব্বানী এর স্বাক্ষরকৃত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই বহিষ্কারাদেশ জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, ১৮ মে রাত আনুমানিক ৩ টা ২০ মিনিটে সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত হন, ডা. আদনান, ডা. রায়হান ও মো. রেদোয়ান।

পরদিন হুমকি উপেক্ষা করে প্ল্যাটফর্ম নিউজ পোর্টালে ধামাচাপা দেয়ার চেস্টা করা এই ঘটনার প্রতিবেদন প্রকাশ করে। নিউজ ছড়িয়ে পড়লে সর্ব স্তরের চিকিৎসক সমাজ থেকে প্রতিবাদ আসে। পুরো ঘটনা নিয়ে প্ল্যাটফর্ম প্রতিবেদন করে ও ফলোআপ অব্যাহত রাখে যা ফমেক ছাত্রলীগের সাবেক নেতৃবৃন্দ ও অন্যান্য উপর মহলে আলোড়ন সৃষ্টি করে।

এরই ধারাবাহিকতায় দল থেকে সাংগঠনিক পদক্ষেপ হিসেবে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেয়া হলো।

আশা করা যায় যে উক্ত সন্ত্রাসী হামলায় দোষীদের আইনানুগ শাস্তি নিশ্চিত করা হবে এবং আহতদের উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ ও প্রয়োজনীয় পুনর্বাসনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এর পূর্বে ২০ তারিখ ডা. আদনান এর অবস্থার অবনতি হলে, তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এর আই.সি.ইউ তে ভর্তি করা হয়। শারীরিক উন্নতি হলে ডা. আদনান কে কেবিনে স্থানান্তর করা হয় এবং বর্তমানে সেখানেই আছেন।

তার দ্রুত সুস্থতার জন্য সকলের কাছে দোয়া করার আহবান জানিয়েছেন ডা. আদনান এর পিতা মাতা এবং সহপাঠীরা।

শেয়ার করুনঃ Facebook Google LinkedIn Print Email
পোষ্টট্যাগঃ ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ,

পাঠকদের মন্তব্যঃ ( 0)




Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Advertisement
Advertisement
Advertisement
.