• নির্বাচিত লেখা

September 15, 2017 4:00 pm

প্রকাশকঃ

লিখেছেনঃডা. নুসরাত সুলতানা লিমা
সহকারী অধ্যাপক
ভাইরোলজি বিভাগ
পি এইচডি অধ্যয়নরত ( মেডিকেল জেনেটিক্স)

বহুল আলোচিত রোগের মধ্যে অন্যতম থ্যালাসেমিয়া। এটি একটি বংশগত রক্তজনিত রোগ।বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশ, ভারতে এর প্রকোপ বেশি।
Non communicable disease গুলোর মধ্যে থ্যালাসেমিয়া ভয়াবহ আকারে ছড়িয়ে পড়েছে। এর কোন প্রতিকার নেই।হিমোগ্লোবিনের ডিফেক্টের কারনে লোহিত কনিকা তৈরী হয়না বলে এই রোগীদের নির্দিষ্ট সময় পর পর অন্যের রক্তের উপর নির্ভর করে বেঁচে থাকতে হয়। তবে আশার কথা এর প্রতিরোধ কঠিন কিছু নয়। প্রাক বিবাহ থ্যালাসেমিয়া স্ক্রীনিং করে ক্যারিয়ার শনাক্ত করে ক্যারিয়ারের সাথে ক্যারিয়ারের বিয়ে বন্ধ করা। আর বিবাহিত দম্পতিদের মাঝে যদি উভয়েই ক্যারিয়ার হন তাহলে প্রিন্যাটাল টেস্টের মাধ্যমে গর্ভস্থ শিশুর থ্যালাসেমিয়া আছে কিনা তা জানা যায়।
অত্যন্ত দু:খের সাথে জানাচ্ছি যে, বাংলাদেশে যে থ্যালাসেমিয়ার প্রিন্যাটাল টেস্টিং হয় তা ১% ডাক্তার জানেন কিনা সন্দেহ। কারণ আমার পরিচিত অনেক ডাক্তার দম্পতির সন্তান থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত।

আমি যতদূর জানি মানুষকে জানাই। যদি তাদের কিছুমাত্র উপকারে আসতে পারি।

ডাক্তার হিসেবে আমাদের নৈতিক দায়িত্ম থ্যালাসেমিয়ার স্ক্রিনিং টেস্ট ও প্রিন্যাটাল টেস্ট কোথায় কত খরচে হয় তা মানুষকে সবিস্তারিতভাবে জানানো। তাহলে কেউ জানতে চাইলে তাকে সঠিক পথ বাতলে দিতে পারবো।

শেয়ার করুনঃ Facebook Google LinkedIn Print Email
পোষ্টট্যাগঃ

পাঠকদের মন্তব্যঃ ( 0)




Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Advertisement
Advertisement
Advertisement
.