করোনা প্রতিরোধ: কেন বাসার বাইরে যাবেন না

২৪ মার্চ ২০২০:
ডা. খালেদ হাসান
জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ও উপদেষ্টা, প্ল্যাটফর্ম

করোনা দূর্যোগ থেকে বর্তমানে দেশকে রক্ষা করার সবচাইতে কার্যকর উপায় হল বাসায় নিজেকে আটকে রেখে চেইন অব ট্রান্সমিশন ব্রেক করা। একটা উদাহরণ দিয়ে বোঝানোর চেষ্টা করি।

করোনা ভাইরাস ছড়ায় এক্সপোনেন্সিয়াল হারে। যেমন ১ জন আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে ৩ জনে, ৩ জন থেকে ৯ জনে, ৯ থেকে ২৭, ২৭ থেকে ৮১, ৮১ থেকে ২৪৩, ২৪৩ থেকে ৭২৯, ৭২৯ থেকে ২,১৮৭, ২,১৮৭ থেকে ৬,৫৬১, ৬,৫৬১ থেকে ১৯,৬৮৩, ১৯,৬৮৩ থেকে ৫৯,০৪৯, ৫৯,০৪৯ থেকে ১,৭৭,১৪৭…. এভাবে চলতেই থাকে যদি প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা না নেয়া হয়।

এখন ধরুন, বাসার বাইরে গিয়ে ৯ নাম্বার আক্রান্ত মানুষটা হতেন আপনি। তার বদলে যদি বাসায় থাকেন, তাহলে আপনি নিজে করোনা ভাইরাস থেকে তো বাঁচবেনই, পাশাপাশি একই সময়ে ১,৭৭,১৪৭ জন আক্রান্ত মানুষের জায়গায় আক্রান্ত হবে ১,৫৭,৪৬৪ জন। অর্থাৎ আপনি বাসায় থাকলে প্রায় ১৯,৬৮৩ জন কম মানুষ আক্রান্ত হবেন। আপনার মত আরও ৬ জন সুবিবেচক মানুষ যদি বাসা থেকে বের না হন, তাহলে একই সময়ে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা হবে ৩৯,৩৬৬। অর্থাৎ ১,৩৭,৭৮১ মানুষকে এই ভাইরাস থেকে রক্ষা করা সম্ভব হবে৷ তাই, আসুন, বাসায় থাকি, নিজে নিরাপদে থাকি, অন্যকে নিরাপদে রাখি।

ছবিতে এই জিনিসটা খুব সহজভাবে দেখানো হয়েছে। ছবিটা নেয়া হয়েছে নিউ ইয়র্ক টাইমস এর ১৯ মার্চ অনলাইন এডিশনের একটি আর্টিকেল (You can help break the chain of transmission) থেকে।

Platform

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Next Post

"শুধু এক ধাপ পিছিয়ে যান": ডা. শুভদীপ চন্দ

Tue Mar 24 , 2020
২৪ মার্চ ২০২০: ডা. শুভদীপ চন্দ, কার্ডিওলজিস্ট এক বাস নষ্ট হয়ে আছে। বাস থেকে নেমে যাত্রীরা ঠেলছেন। কিন্তু বাস চলছে না। এক ছোট ছেলে সেখানে ছিল। সবার দেখাদেখি সেও ধাক্কা দিল। বাস চলা শুরু করলো। বাস কী ওই শিশুর ধাক্কায় চলেছে? মোটেই না। হয়তো সবার পরে ওই নিউটন বলটুকুরই অভাব […]

সাম্প্রতিক পোষ্ট