• প্রথম পাতা

April 28, 2016 12:57 pm

প্রকাশকঃ

১. পরীক্ষায় টার্ম প্রথা সম্পূর্ণ বাতিল করতে হবে।

২. পরীক্ষায় ফি ঘন ঘন বৃদ্ধি না করা এবং বর্ধিত ফি বাতিল করতে হবে।

৩. পরীক্ষায় স্বজনপ্রীতি বন্ধ ও পাসের হার বৃদ্ধি করতে হবে।

৪. যেকোনো নতুন নিয়ম পার্ট-১ পরীক্ষার পূর্বে ঘোষণা করতে হবে এবং পার্ট-১ পাস করার পর তাদের উপর কোন অযৌক্তিক নিয়ম চাপিয়ে দেওয়া যাবেনা।

৫. লিখিত Ospe, Clinical, Viva পদ্ধতি সম্বন্ধে বিসিপিএস থেকে সুস্পষ্ট নীতিমালা ঘোষণা করতে হবে।

৬. কোন পরীক্ষায় একবার কৃতকার্য হলে ঐ অংশ পুনরায় প্রদান থেকে অব্যহতি দিতে হবে।

৭. বিতর্কিত পরীক্ষকবৃন্দকে পরীক্ষা কার্যক্রমের বাইরে রাখতে হবে।

৮.  অকৃতকার্য ছাত্র-ছাত্রীদের পরীক্ষার ফলাফলের বিস্তারিত বিবরণ জানাতে হবে।

৯. পরীক্ষকবৃন্দের নিয়মিতভাবে পরীক্ষক হিসেবে মূল্যায়নের ব্যবস্থা করতে হবে।

 

টার্ম প্রথা বাতিল করে অন্যান্য দাবী মেনে আগামী সাত দিনের মধ্যে কর্তৃপক্ষ সুস্পষ্ট ঘোষণা প্রদান না করলে ছাত্র-ছাত্রীদের পক্ষ থেকে বৃহত্তর আন্দোলনের কর্মসূচী ঘোষণা করা হবে।

13092167_1608919316100473_7530695578692870545_n

 

শেয়ার করুনঃ Facebook Google LinkedIn Print Email
পোষ্টট্যাগঃ Fcps student's rights, এফ. সি. পি. এস ছাত্র-ছাত্রীদের দাবীসমূহ,

পাঠকদের মন্তব্যঃ ( 19)

  1. Qafi Siraj says:

    inshAllah! Yes! Let’s do this!

  2. Ahasanur Tomal says:

    bcps kay avoid korlei hoy

  3. Nirjhar Aloy says:

    পার্ট ২ পরীক্ষায় ভিডিও মনিটরিং চালু এবং পরীক্ষার্থীর চ্যালেঞ্জের অধিকার না থাকলে বিতর্কিত পরীক্ষক ও স্বজনপ্রীতি থেকে মুক্তি সম্ভব না। কাজেই এই ধারাটি স্পেসিফিক করে পরীক্ষায় ভিডিও মনিটরিং এবং পরীক্ষার্থীদের পুনর্নীরিক্ষণ এর সুযোগ থাকতেই হবে।

  4. Anwar Sadat says:

    সবগুলো পয়েন্টের সাথে সহমত পোষণ করছি। বিশেষ করে যেসকল পরীক্ষকের অধীনে স্টুডেন্টরা বেশি বেশি ফেল করছে তাদের অতীত ও বর্তমান রেকর্ড দেখে তাদেরকে অব্যহতি দেয়া, প্রয়োজনে শাস্তির ব্যবস্হা করা যেতে পারে।

  5. Ashraf Jewel says:

    এটা হবার ছিল. ইনফ্যাক্ট অনেক আগে থেকেই এই আন্দোলন আরম্ভ হওয়া উচিৎ ছিলো। তবুও যে আরম্ভ হয়েছে এই জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ . বি সি পি এস এর যারা কর্তাব্যক্তি তারা প্রায় প্রত্যেকেই হয় বাপের টাকায় পড়েছে অথবা বড়লোক শশুরের মাথায় ভর করে পড়াশোনা করেছে। কিন্তু এখনকার ছেলেরা নিজেদের উপার্জিত অর্থে পোষ্ট গ্রাজুয়েশন করে সঙ্গে পরিবারকেও সাহায্য করে।

  6. Murad Molla says:

    ট্রেনিং এ মাগনা খাটনি রদ ও খাটনির সীমা নির্ধারিত করতে হবে। হাবিজাবি অবিন্যস্ত ট্রেনিং সময়ের অপচয় ছাড়া কিছু না। না শিখিয়ে পরীক্ষা নেয়া একটা প্রহসন মাত্র।

  7. Ishakul Kabir Avi says:

    পরীক্ষকদের মূল্যায়ন যদি উনাদের স্টাইলেই করা হয় তাহলে উনারা একজন পন্ডিতও পাস করবেন না।

    “সিম্পল”/”নরমাল” এমবিবিএস ধোঁয়াটা উনাদেরই সৃষ্টি যাতে সবাই fcps এর পিছে দৌড়ায়।

    আমাদেরও দোষ আছে। আমরাই এদের মাথায় তুলসি :(

  8. Shantanu Mohajan says:
  9. Sheikh Nilufar Yasmin Pushpo says:

    single best din din baracche, age jokhon sir ra pass koreche, tokhon to single best e chilo na…

  10. Qafi Siraj says:

    Ekbar fcps exam boycott korle shoja hoye jabe, takar upor bhashtese to. Ar amrao bhashiye jachi. Mathai to utbei.

  11. Samiha MUmtahin KhAn Toma says:

    Mohammad Shabuktagin

  12. Fahad Islam says:

    FCPS worldwide accept korar topics ta thkle vlo hoto..

  13. Sabikun Nahar says:

    Please extend your hand,raise your voice and unite.we shall overcome

  14. Golam Morshed says:

    We Shall Overcome !!

  15. Ahmed Imran Dipu says:

    sobaike ek kore ei porikkha deya boikot korar bebostha korte hobe.ta holei sobgulo size hoye jabe.

  16. Arif says:

    Abolish the non sense HMO ship.

  17. Arif says:

    HMO-অনাহারী প্রথা বাতিল করা হোক।HMO-অনাহারী প্রথা বাতিল করলে বাকি সব ঠিক হওয়া কঠিন কিছু না।
    ABOLISH THE NON SENSE HMO SHIP.OTHERWISE SIMPLY BOYCOTT HMO SHIP,LETS SEE HOW MANY DAYS THEY CAN RUN HOSPITALS.




Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Advertisement
Advertisement
.