অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ পুনরায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক | সফলতম ডিজি


সাফল্যের স্বীকৃতি স্বরুপ, পুনরায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এর ডিজি হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ।

২৭ মার্চ প্রকাশিত প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদকে পুনরায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক হিসেবে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

জন প্রশাসন মন্ত্রনালয় থেকে জারীকৃত একটি প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে তাকে এ নিয়োগ দেয়া হয়। আগামী ১৫ এপ্রিল ২০১৯ হতে এ নিয়োগ কার্যকর হবে বলেও প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়।

অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ এর পূর্বে ১ সেপ্টম্বর ২০১৬ থেকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) পদে সফল ভাবে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) এবং এমআইএস কার্যক্রমের পুরোধা হিসেবেও তিনি বহুল পরিচিত।

এ পদে বহালের মাধ্যমে অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ আবারও বিসিএস স্বাস্থ্য ক্যাডারের শীর্ষ পদে অধিষ্ঠিত হলেন।

প্ল্যাটফর্মের পরিবারের পক্ষ থেকে অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদকে ফের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নতুন মহাপরিচালক নিযুক্ত হওয়ায় প্রাণঢালা অভিনন্দন। আবারো অধিদপ্তরের মহাপরিচালক পদে আপনার মেধাবী সিদ্ধান্তে স্বাস্থ্য খাত আলোকিত হোক।

সূত্র মতে, খুব স্বল্প সময়েই প্রফেসর ডা. আজাদ সারা দেশের সকল স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানে হেলথ্ ইনফরমেশন সিস্টেম (এইচআইএস) এর মাধ্যমে কমিউনিটি লেভেল পর্যন্ত স্বাস্থ্য সেবা ও ব্যবস্থাপনার সকল তথ্য সংগ্রহ, পরিমাপযোগ্য ও সহজবোধ্য উপায়ে উপস্থাপনের ব্যবস্থা করেছেন।

এইচআইএস-এর মাধ্যমে তিনি সারা দেশের স্বাস্থ্যসেবা ও ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত সকল তথ্য একটি কমন প্ল্যাটফর্মে এনেছেন যা থেকে সকল সরকারি-বেসরকারি সুবিধাভোগী তথ্য নিতে পারে ও সে অনুযায়ী পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারে।

ম্যাটারনাল এবং চাইল্ড হেলথ-এর ইলেক্ট্রনিং ট্র্যাকিং সিস্টেম-এর মাধ্যমে মনিটরিং, মোবাইল ফোনে স্বাস্থ্য সেবা, টেলিমেডিসিন, এমহেলথ্/ইহেলথ্, মেডিকেল বায়োটেকনোলজি ইত্যাদি প্রফেসর আজাদের উদ্ভাবনগুলোর অন্যতম।

দেশের সকল মানুষের স্বাস্থ্য অবস্থার ডিজিটাল রেকর্ডিং তাঁর অন্যতম বড় উদ্যোগের একটি। এছাড়াও তিনি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ই হেলথ্ টেকনিক্যাল গ্রুপের একজন সদস্য। ডা. আজাদ অধীনে তার ডিপার্টমেন্ট বাংলাদেশকে এনে দিয়েছিলো জাতিসংঘ ডিজিটাল হেলথ এ্যাওয়ার্ড ২০১১ এবং জার্মান সরকারের এইচআইস বেস্ট প্রাকটিস রিকগনিশন এ্যাওয়ার্ড ২০১৪। 

১৯৮৩ সালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেন অধ্যাপক ডাঃ আবুল কালাম আজাদ। ১৯৯০ সালে তৎকালীন আইপিজিএমআর (বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়) থেকে এমফিল ডিগ্রি অর্জন করেন। পূর্ণাঙ্গ অধ্যাপক হিসেবে দায়িত্ব পালন শুরু করেন ২০০১ সাল থেকে।

২০০৮ সালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম (এমআইএস) বিভাগের পরিচালক পদের দায়িত্ব পান। ২০১১ সালে আবুল কালাম আজাদ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) পদে দায়িত্ব পান, একইসঙ্গে এমআইএসের পরিচালক পদের দায়িত্ব পালনে ছিলেন। ২০১৬ সালের জানুয়ারি মাসে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) পদের দায়িত্ব পান তিনি।

ওয়েব টিম

2 thoughts on “অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ পুনরায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক | সফলতম ডিজি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Next Post

"প্ল্যাটফর্ম, রংপুর জোন"এর ৪৯ তম মহান স্বাধীনতা দিবস পালন

Wed Mar 27 , 2019
“স্বাধীনতা মানে নিশ্চিন্ত জীবনে আপনজনদের নিয়ে আয়োজন”- স্বাধীন একটি ছোট্ট শিশু দেশ তাঁর শৈশব, কৈশোর পার করে যৌবনে প্রবল দাপটে এগিয়ে চলছে। তাঁর চলার পথে অসম্ভব চাওয়া পাওয়ার মিশ্রিত প্রতিবিম্ব। সেই স্বাধীন দেশের মানবতার সাথে জড়িত চিকিৎসা পেশার মানুষগুলোও শত ব্যস্ততার মাঝে শ্রদ্ধা ভরে পালন করেন ‘স্বাধীনতা দিবস’।   ৪৯ […]

সাম্প্রতিক পোষ্ট