Amitriptylin ইন্ডিকেশন এবং অন্যান্য

লেখকঃ রাজ্যহীন রাজপুত্র
আজকের ড্রাগ “AMITRIPTYLIN”

General Consideration :
-এমিট্রিপটাইলিন (ট্রিপটিন নামে বেশী পরিচিত) বাজারে প্রচলিত বহুল ড্রাগসমুহের একটি ।
ট্রাইসাইক্লিক এন্টিডিপ্রেসেন্ট ড্রাগগুলোর মধ্যে এটি সবচেয়ে বেশী ব্যবহ্রত হয় ।এটি মূলত ডিপ্রেসিভ ডিসঅর্ডারে আবিষ্কৃত ড্রাগ হলেও এখন নিউ ড্রাগস আসার কারণে এটি ডিপ্রেসিভ ডিসঅর্ডারে ব্যবহ্রত হয় কম ।অন্যান্য অনেক ব্যবহারে এটি সম্যক পরিচিত ।WHO লিষ্টে হেলথ এসেনশিয়াল ড্রাগস হিসেবে এটি উল্লেখিত ।

MECHANISM OF ACTION :

ট্রিপটিন সেইসকল এনজাইমকে ইনহিবিট করে যারা সিন্যাপস এ নরএড্রেনালিন ,সেরেটোনিন কে ভেঙে দেয় ।ফলশ্রুতিতে এসকল নিউট্রান্সমিটার সিন্যাপসে বেড়ে যেয়ে পোষ্ট সিনাপটিক নার্ভের পটেনশিয়াল বাড়িয়ে নার্ভ এক্সাইটেটরি ইফেক্ট তৈরি করে ।

INDICATIONS :(theoritical +clinical)

1.মেজর ডিপ্রেসিভ ডিসঅর্ডার :এক্ষেত্রে স্টার্টিং ডোজ মিনিমাম 75mg .ডিসাইয়ারড ইফেক্ট পেতে কমপক্ষে একুশ দিন সময় লাগে ।tab triptin 25mg 1+1+1.

2.টেনসন হেডেক :যাদের মাথায় ব্যান্ড লাইক হেডেক আছে ,চিন্তায় মাথাব্যাথা বাড়ে তাদের জন্য একটি অত্যন্ত কার্যকরী ।Tab amit 10mg 0+0+1

3.মাইগ্রেইন প্রোফাইলেক্সিস :যাদের মাইগ্রেনের ব্যথা আছে তাদের রিলাপস প্রিভেন্ট করার জন্য চমত্‍কার ।স্টাটিং ডোজ 10mg 3times then gradual titration.

4.নকচারনাল ইনিউরেসিস :বার বছরের আগে যেসব বাচ্চারা বিছানায় অজান্তে হিসু করে দেয় তাদের জন্য

A.ঘুমানোর দুই ঘন্টা আগে থেকে পানি খাবে না ও ঘুমাতে যাওয়ার আগে পেশাব করবে

B.মাঝরাতে তাকে তুলে দিয়ে পেশাব করাতে হবে ,বেগ থাকুক না থাকুক ।

C.tablet amitritylin 10mg daily at night

5.ডায়াবেটিক নিউরোপ্যাথী :চমত্‍কার ড্রাগ ।25mg 1/2 +0+1 .

6.সায়াটিকা ও পোষ্ট হার্পেটিক নিউরালজিয়া :পচিঁশ মিগ্রা বিডি ।গ্রাজুয়াল টাইট্রেশন ।

7. আইবিএস এর দুটো ভ্যারাইটি আছে ।ডায়রিয়া প্রিডমিনেন্ট আইবিএস এ এটা ব্যবহার করা হয় ।এটা নর এড্রেনালিন বাড়ায় ও রিলেটিভলি এসিটাইলকোলিন কমিয়ে দেয় ।আর গাট মটিলিটি ach dependent.so reduction of ach and increase of NA হওয়ার কারণে কন্স্টিপেশন হয় যেটা ডায়রিয়া ভ্যারাইটি আইবিএস এ দেওয়া হয় ।

SIDE EFFECTS :
নরএড্রেনালিনকে বাড়িয়ে দেওয়া মানে এসিটাইলকোলিন কমে যাওয়া ।তাই সব রস শুকিয়া যাবে ,মটিলিটি কমবে ।ড্রাই মাউথ ,ড্রাই আই ,ইউরেনারী রিটেনশন ,কনস্টিপেশন ,ব্রাডিকার্ডিয়া ,কনডাকশন এরিথমিয়া ইত্যাদি ।

রিলেটিভ কন্ট্রাইন্ডিকেশন :
বিনাইন প্রোষ্টেটিক হাইপারট্রফী (প্রসাব আটকে যাবে ,মেকানিজম দেখুন)

সিজার (কারণ নার্ভ উত্তেজিত হয়ে একশন পটেনশিয়াল বাড়ায়)

ইস্কেমিক হার্ট ডিজিজ(এরিথমিয়া করে)

FASHION OF NEW GENERATION :ট্রিপটিন ওভারডোজ :

এখন স্মার্টছেলেমেয়েরা আত্মহত্যা করতে আর সিডেটিভ গেলে না ।এখন ট্রিপটিন এর যুগ ।রাগ ,ছ্যাঁকা থেকে ট্রিপটিন খাওয়া নিত্যনতুন ঘটনা ।এরকম কেস আসলে দেখুন(উল্লেখ্য এটা ফাইনাল প্রফে মেডিসিন ভাইভা কোশ্চেন)

পিউপিল ডায়ালেটেড কিনা ?

পালস কত ও রেগুলার কিনা ?

এয়ার হাংগার ব্রেথিং আছে কিনা ?

ইসিজিতে ভিটি অথবা ভিএফ আছে কিনা অথবা ব্রড কিউআরএস কম্প্লেক্স কিনা ?

ব্লাডগ্যাস এনালাইসিসে মেটাবলিক এসিডোসিস হচ্ছে কিনা ।

যদি শেষ চারটার একটাও পাওয়া যায় তাহলে এটার ট্রিটমেন্ট একটাই ।সোডিবাইকার্বনেট ।7.8% ।ইনজেক্ট করুন আর যাদু দেখুন ।

N.B -বাজারে দুই স্ট্রেন্হ পাওয়া যায় ।একটা পচিঁশ আরেকটা দশ ।ক্লিনিকালী দুইশ পঞ্চাশ মিগ্রা একসাথে না খেলে (দশ এর পচিঁশটা আর পচিঁশ এর দশটা)পয়সনিং আনলাইকলী ।

ডক্টরস ডেস্ক

One thought on “Amitriptylin ইন্ডিকেশন এবং অন্যান্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Next Post

১০ অক্টোবর বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস : চাই সচেতনতা ও সমন্বিত সেবা

Fri Oct 10 , 2014
  লিখেছেন: ডা. ফারজানা রিমি, lowa city, usa ডাক্তারি পাশ করে যখন ইন্টার্নশিপ করতে ঢুকলাম, তখন দেখলাম, মেডিসিন ওয়ার্ড এর সবচেয়ে অবাঞ্ছিত রোগের নাম- Conversion Disorder. কেউ কেউ বলে- FD (Functional Disorder).. কী হয় এই রোগে? – রোগী এমন কিছু বিচিত্র শারীরিক সমস্যা নিয়ে হাজির হয়, পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে যার কোন […]

সাম্প্রতিক পোষ্ট