শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ পিঠা উৎসব-২০১৮

শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ প্রাঙ্গনে হয়ে গেল পিঠা উৎসব-২০১৮।

শীতের এই আমেজে পিঠা খেতে কার না ভালো লাগে।তাইতো উৎসবে উপস্হিত ছিলেন কলেজের সকল শিক্ষক শিক্ষিকা এবং এমবিবিএস ও ডেন্টালের সকল ছাত্র ছাত্রী।

উক্ত উৎসবে উপস্হিত ছিলেন কলেজের প্রিন্সিপাল এবিএম মাকসুদুল আলম বাসু,ভাইস প্রিন্সিপাল শাহাদত হোসেন রিপন,শ.সো.মে.ক এর শিক্ষক সমিতির সভাপতি আ.হ.ম ডা.সেলিম রেজা,সাধারণ সম্পাদক ডা.নিহার রঞ্জন সরকার।এছাড়া সকল ডিপার্টমেন্ট প্রধান ও অন্যান্য সকল শিক্ষক শিক্ষিকা মহোদয়গন উৎসবে উপস্হিত ছিলেন।

পিঠা উৎসব শুরু হয়েছিল সকাল ৮.৩০মিনিটে।শুরুতেই সবাই দলবেধে জড় হতে থাকে কলেজ ক্যাম্পাসে।এরপর শুরু হয় পিঠা খাওয়া।

হরেক রকমের পিঠা ছিল। যেমন-চিতুই,ভাপা,পাটিসাপটা, দুধ পিঠা ইত্যাদি।এছাড়া ছিল হাসেঁর মাংস ও লুচি এবং সাথে কফিও ছিল।

একদিকে ছিল পিঠা অন্যদিকে চলছিল সাংস্কৃিতিক অনুষ্ঠান।ছাত্রছাত্রী এবং শিক্ষক শিক্ষিকা সকলেই অংশগ্রহন করেছিল।তাদের গান কবিতা সকলকে করেছিল আরও চনমনে।সাংস্কৃিতিক অনুাষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ৪র্থ বর্ষের ছাত্র আব্দুল্লাহ আল জুবায়ের।

আর অন্যদিকে চলছিল ছবি তোলা।যেন এক আনন্দমেলা, যে মেলা মেডিকেলের প্যারময় জীবনে এনেছিল একটুখানি প্রশান্তি।

অনুষ্ঠানটি শেষ হয় ছাত্র ছাত্রী আর শিক্ষক শিক্ষিকাদের ছবি তোলার মাধ্যমে।

লেখক:মো. নূরনবী

এসএইচ১২

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Next Post

Motion sickness - কি, কেন এবং এর চিকিৎসা

Fri Dec 14 , 2018
প্রিয় পাঠক, নিশ্চয়ই আমার মতো আপনারও দূরে কোথাও ঘুরতে যেতে ভালো লাগে? কিন্তু জানেন, কিছু মানুষ আছে যাদের গাড়িতে করে যেতে হবে শুনলেই একটা ভীতি কাজ করে। কারণটা হচ্ছে, বিবমিষা। বিবমিষা মানে হচ্ছে “বমি বমি ভাব”। অনেকে তো গাড়ির ভিতরেই বমি করে ফেলেন। কি করবেন বলুন, বিধি বাম! এটা কি […]

সাম্প্রতিক পোষ্ট