• নিরাপদ কর্ম স্থল চাই

October 31, 2019 11:10 am

প্রকাশকঃ

৩১ অক্টোবর ২০১৯:

কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কর্মরত থাকা অবস্থায় একজন নারী ইন্টার্ন চিকিৎসককে লাঞ্ছনা এবং হাসপাতালের সরকারী সম্পত্তি ভাংচুরের অপরাধে শাহজামান অন্তর নামের একজনকে ২ বছরের সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে কুষ্টিয়া জেলা জজ আদালত।

গত ২৪ অক্টোবর বৃহস্পতিবার কুষ্টিয়া জেলা জজ আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারপতি মুন্সী মশিউর রহমানের তত্ত্বাবধায়নে মামলার এ রায় ঘোষণা করা হয়। রায়ে শাহজামান অন্তরকে ২ বছরের সশ্রম কারাদন্ড দেওয়া হয়। একইসাথে অন্তরের সঙ্গী রাসেলকে ১ বছর ও শুভকে ৬ মাসের সশ্রম কারাদন্ডে দন্ডিত করা হয়েছে। ৩ জনকেই কুষ্টিয়া জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য যে গতবছর ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ তারিখে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ঢুকে অন্তর ও তার সঙ্গী-সাথীরা ইন্টার্ন ডা: ইসরাত হুমাইরা নীলাকে লাঞ্ছনা করে, হাসপাতালে ভাংচুর করে এবং কর্তব্যরত পুলিশের গায়ে হাত তোলে। এর পরই অন্তরকে জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল। দীর্ঘদিন মামলাটি প্রক্রিয়াধীন থাকার পর গত ২৪ শে অক্টোবর বৃহস্পতিবার মামলার রায় ঘোষণা করা হয়।

এই রায় হাসপাতালে কর্তব্যরত ডাক্তারগণ ও স্টাফদের জন্য একটা মাইলফলক। প্ল্যাটফর্ম পরিবারের পক্ষ থেকে ডা:ইসরাত হুমাইরা নীলাকে অভিনন্দন। সেই সাথে কুষ্টিয়া জেলা জজ আদালতকেও ধন্যবাদ সুষ্ঠ বিচার ব্যাবস্থার জন্য।

তথ্যসূত্র:
সবুজ রানা, কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ

প্রতিবেদক/ওয়াসিফ হোসেন

শেয়ার করুনঃ Facebook Google LinkedIn Print Email
পোষ্টট্যাগঃ

পাঠকদের মন্তব্যঃ ( 0)




Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Advertisement
Advertisement
Advertisement
.