• নিউজ

September 1, 2017 10:15 pm

যুক্তরাস্ট্রের ওষুধ অনুমোদন সংস্থা এফডিএ সম্প্রতি ফ্লুরোকুইনোলোন গ্রুপের নতুন একটি এন্টিবায়োটিক অনুমোদন করেছে যা চামড়ায় ব্যাকটেরিয়া সংক্রমন জনিত প্রদাহ বা স্কিন এবং স্কিন স্ট্রাকচারাল ইনফেকশন (ABSSSI) নিরাময় করতে ব্যবহার করা যাবে। এই ইনফেকশন সাধারনত গ্রাম-নেগেটিভ ব্যাক্টেরিয়া এবং গ্রাম পজিটিভ ব্যাক্টেরিয়া (মেথিসিলিন রেজিস্টেন্ট স্ট্যাফাইলোকোক্কাস অরিয়াস ও সিউডোমোনাস অরিজিনোসা) এর সংক্রমন এর কারনে হয়।

অনুমোদিন ওষুধটির নান ডেলাফ্লক্সাসিন যেটি বাজারে বিক্রিত হবে ব্যাক্সডেলা হিসেবে। ওষুধটি ২টি ফেজে ৩টি ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল এর উপর ভিত্তি করে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে যা যুক্তরাস্ট্র, ইউরোপ এবং দক্ষিন আমেরিকাতে পরিচালিত হয়েছে। ট্রায়ালগুলোতে ১০৪২ জন ABSSSI এর রোগী ছিলো যাদের অর্ধেক কে ডেলাফ্লক্সাসিন এবং অর্ধেককে ভ্যানকোমাইসিন+এজট্রিওনাম ওষুধ দেয়া হয়। উভয় চিকিতসার সময় ছিলো ৫-১৪ দিন।

চিকিতসা শুরুর ৪৮-৭২ ঘন্টার মাঝেই ইনফেকশন এর কারনে চামড়ার প্রদাহ জনিত এলাকায় (এরিথেমা) মিনিমাম ইনহিবিটরি কনসেন্ট্রেশন এর ভিত্তিতে ভ্যাকমোমাইসিন+এজট্রিওনাম এর চেয়ে নতুন এই ডেলাফ্লক্সাসিন এর কার্যকারীতা বেশি লক্ষ্য করা যায়। ডেলাফ্লক্সাসিন শিরাপথে বা মুখে ব্যবহার করা যায়।

অন্যান্য ফ্লুরোকুইনোলন এর মতই ডেলাফ্লক্সাসিন এর কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে যেমন টেনডিনাইটিস, টেনডন রাপচার, পেরিফেরাল নিউরোপ্যাথি ইত্যাদি। তাছাড়া মায়েস্থেনিয়া গ্র‍্যাভিস রোগে আক্রান্ত রোগীদের ক্ষেত্রে ডেলাফ্লক্সাসিন মাংসপেশীর আরো দুর্বলতা সৃষ্টি করতে পারে। সাধারন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া এর মাঝে আছে বমি ভাব, ডায়রিয়া, মাথা ব্যাথা, বমি ইত্যাদি।

বাজারজাতকরণ প্রতিষ্ঠান কানেকটিকাটের নিউ হেভেনের মেলিনা থেরাপিউটিকস ৫ বছর ধরে গবেষণা করছে ডেলাফক্সাসিন এর বিরুদ্ধে জীবানুরা প্রতিরোধ তৈরি করতে পারে কিনা সে বিষয়ে।

তথ্যসূত্র: The JAMA Network

 

 

 

সম্পাদনাঃ তানজিল মোহাম্মাদীন

শেয়ার করুনঃ Facebook Google LinkedIn Print Email
পোষ্টট্যাগঃ

পাঠকদের মন্তব্যঃ ( 0)




Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Advertisement
Advertisement
Advertisement
.