• হেলথ টিপস

September 24, 2017 7:05 pm

প্রকাশকঃ

সবাই বাচ্চার ওজন বাডাতে চায়। মোটা বাচ্চা মানেই সুস্থ , শুকনো বাচ্চা মানে অসুস্থ তা কিন্তু নয় । ওজন কমের দিকে , অন্য কোন অসুখ নেই , ঘন ঘন অসুস্থ হয় না , এ রকম বাচ্চার আসলে তেমন কোন অসুবিধা নেই । এটা অনেকসময় পরিবেশগত বা পারিবারিক । অনেক বাচ্চা কম খেয়েই ওজন ঠিকক থাকে ও নিয়মিত বাডে ।এ রকম হলে চিন্তার কিছু নেই । মা রা বলে , সবাই বলছে বাচ্চা শুকনো এগুলিতে কান দেবেন না । সুস্থ থাকলেই চলে । ফাষ্টফুডের যুগে ওজন কমানোটাই সমস্যা । একটু বড হলেই মানে টিন এজে পডলেই অনেকের ওজন বাডা শুরু হয় । একটু ধৈর্য্য ধরলেই হয় । বাচ্চার আদর মানেই কিন্তু বেশী খাওয়ানো নয় বরং যত্ন টা খাওয়ার উপর না দিয়ে তাকে কোয়ালিটি টাইম দেয়া বা তার মানসিক স্বাস্হ্যের দিকে নজর দেয়া বেশী জরুরী ।

21616368_1695350033830809_2844350666471976819_n

pedi
১. স্বাস্হ্যকর পদ্ধতিতে ওজন বাডাতে হলে , প্রথমেই ডাক্তার্র কাছে জেনে নিন , বয়স এবং উচ্চতা অনুপাতে তার ওজন ঠিক আছে কিনা , কতটুকু রেন্জে ওজন রাখতে হবে । এটা চার্ট করা আছে । ও যদি চার্টেই থাকে , তাহলে চিন্তার কিছু নেই । আর যদি সত্যিই বয়স ও উচ্চতা অনুপাতে ওজন কম থাকে তাহলে খাওয়ার দিকে নজর দিন ।
২. দিনে ৫ বার ই খাবার দেবেন । তিন টা বড খাবার সকাল, দুপুর , রাত । এবং মাঝখানে দুটা নাস্তা । এই নাস্তা চাইলে আরো দুবার দিতে পারেন ।
সকাল ৮:০০ টায় : সকালের নাস্তা
১১:০০ টায় : একটা স্ন্যাক্স
০১: ০০ টায় : দুপুরের ভাত
০৪: ০০ টায় বিকালের নাস্তা বা স্ন্যাক্স
০৬: ০০ টায় আরেকটি স্ন্যাক্স
০৯:০০ টায় রাতের খাবার

এভাবে ৩ ঘন্টা পর পর মিল টাইম সেট করতে পারেন । মাঝের সময় টুকু , কোন খাবার দিবেন না । স্ন্যাক্সগুলো বেশী পুষ্টিকর করে তৈরী করুন । নীচে কিছু পুষ্টিকর স্ন্যাকস দেয়া হল ।

৩.সকালের নাস্তা কোন ভাবেই বাদ দেবেন না । অনেক বাচ্চা সকালে খেতে পারে না । একটু দেরী করে খেতে দিন বা স্কুলে ভারী টিফিন দিন ।

৪. কি খাবার দিলে ওজন বাডবে :
এটা সবাই জানে , ডিম , দুধ , দই , মাছ , মাংস , বাদাম , ফলমুল , ইত্যাদি

৫ . কি ভাবে দেবেন :
:প্রতিদিন একটা বা দুটা ডিম দিন । এক ভাবে খেতে না চাইলে অন্য ভাবে দিন । পোচ , পুডিং , এগশেক, সিদ্ধ , পানিপোচ , মামলেট ।
:দুধ দিন দুই বেলা । খেতে না চাইলে দই , দই এর সাথে ড্রাই ফ্রুট কিসমিস , বাদাম মাশাতে পারেন । পনির দিতে পারেন ।
দুধ , ডিম , চিনি মিশিয়ে গরম করলেই এগশেক তৈরী হয় । খেতে মজা ও স্বাস্থ্যকর ।
:কার্বোহাইড্রেট সমৃদ্ধ ফল কলা দিন । খেতে না চাইলে , দুধে মিশিয়ে বানানাশেক বানিয়ে দিন । এভাবে আম , পেপে , যে কোন মৌসুমি ফল বা শেক বনিয়ে দিন।
:শুকনো ফল খেজুর , কিসমিস , বাদাম এতে ক্যলরি বেশি । সুযোগ হলেই এগুলো খেতে দিন , দই এর সাথে মিশিয়ে দিতে পারেন
:পী নাট বাটার খুব স্বাস্হ্যকর । বাসায় বানিয়ে দিন । এককাপ চানাবাদাম , আধাকাপ চিনি , এক চা চামচ ঘি । ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করুন। হয়েগেল তৈরী । পাউরুটি বা বিস্কিটে লাগিয়ে দিন।
: ডিম দিয়ে পাস্তা , নুডুলস তৈরী করে দিন ।
: আলু ভেজে ফ্রেন্চ ফ্রাই করেদিন ।
: চিকেন বা মাছ ফিলে করে ময়দায় ডুবিয়ে হাই ক্যলরি ফ্রাই তৈরী করেদিন ।
: আলু বা দই , চা এতে ক্রিম মেশাতে পারেন,
: starchy সব্জী আলু , ফুলকপি , মিষ্টি কুমডা , মিষ্টি আলু বেশী বেশী দিন ।,
: পাউরুটি বাটার লাগিয়ে দিন ।পনির ও দিতে পারেন ।
: বুটের ডালের , মসুর ডালের , সুজির হালুয়া করতে পারেন
: প্রতিদিন বাসায় ফলের রস তৈরী করে দিন।
: প্রচুর ফলমুল খেতে দিন
: প্রচুর পানি পান করার অভ্যাস রাখুন।

৬: দিনে ৫০০ ক্যালরি খাবার এক্সট্রা দিন , এতে তার সপ্তাহে , দুসপ্তাহে ১ পাউন্ড ওজন বাডবে ।
৭: রাতে ঘুমানোর আগে এক গ্লাস দুধদিন ।
৮: হাইপ্রোটিন , হাই কার্বোহাইড্রেট , হাই ফাইবার এবং মধ্যম মানের ফ্যাট দিন ।
৯: যা দেবেন ঘরে তৈরী করে দিন । দোকানের বার্গার , জুস , কোক ফান্টা , চিপস এসব একেবারেই দেবেন না ।
১১: খাওয়ার আগে পানি খেতে দেবেন না ,
১২: প্রতি মিলের পরেই একটা কলা বা বেনানা শেক খেতে দিন ।
১৩: প্রতিদিন অল্প অল্প করে খাওয়ার পরিমান বাডান , একসাথে বেশী দিতে গেলে ডায়রিয়া হতে পারে
১৪ : রেগুলার ব্যায়াম বা হাটার অভ্যাস রাখুন । কিন্তু এরোবিক্স করা যাবে না ।
১৫: সকালের নাস্তায় অবশ্যই একটা বানানামিল্ক শেক বানিয়ে দিন ।
১৬: খাবার সাজিয়ে দিন । বড প্লেটে একবারে বেশী করে খাবার নিন , কিছু সাজানো ছবি দেয়া হলো
১৭: ভাল ঘুম হয় যেন লক্ষ্য রাখুন ।
১৮: কিছু হাই ক্যলরি খাবার হল পনির , পুডিং , বাদাম , বাটার , ডিম , মিষ্টি আলু, পি নাট বাটার , দুধ , দই , মাংস , মাছ।
১৯:প্রতি সপ্তাহে ওজন মাপুন ও লিখে রাখুন । চার্টে চলে আসলেই , ওজন বাডানো ছেডে দিন ।
২০ : মনে রাখবেন বেশী মোটা মানেই কিন্তু সুস্থ নয়

ডা: কামরুন নাহার লুনা ,
শিশু বিশেষজ্ঞ ।

শেয়ার করুনঃ Facebook Google LinkedIn Print Email
পোষ্টট্যাগঃ

পাঠকদের মন্তব্যঃ ( 0)




Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Advertisement
Advertisement
Advertisement
.