Inter Medical Football Tournament – 2017 : Match Day 2: – DDC vs PAHMC

22752246_10203642278974048_1168349538_n
অনুষ্ঠিত আন্ত:মেডিকেল ফুটবল টুর্নামেন্টের ২য় দিনের খেলায় ৩য় ম্যাচে ঢাকা ডেন্টাল কলেজ এবং প্রতিপক্ষ হিসেবে ছিলো প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ মেডিকেল কলেজ।

গ্রুপ পর্বের ১ম ম্যাচে নেমেছিল ঢাকা ডেন্টাল কলেজ। অপরদিকে কোয়ার্টার ফাইনাল খেলতে অবশ্যই জয়লাভ করতে হবে PAHMC র।

শুরুতে কিছুটা অগোছালো হলেও ধীরে ধীরে দুদলই নিজেদের সুন্দর গোছানো খেলা শুরু করে। আক্রমণ – পাল্টা আক্রমণে খেলা যখন ১ম গোলের মুখ দেখবে ঠিক তখনই রেফারির বাশি।
অফসাইড … এর পর কিছু পাল্টা আক্রমণে ডিডিসির গোলকিপার ইসতি বেশ নিখুঁত কিছু সেভ করে দলকে বিপদমুক্ত করে।

আবারো রেফারির বাশি। এবং প্রথমার্ধের খেলা শেষ।

দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শুরু।

শুরু থেকেই ২ দল আক্রমণে মেতে উঠলো যেন। এরই মাঝে রাইট উইং থেকে এক থ্রুতে সাব্বির হাসান জনের পা থেকে আসে ১ম গোল। উল্লাসে মেতে উঠলো ডিডিসি এবং ফুটবল অনুরাগী দর্শকবৃন্দ।

PAHMC র বেশ কিছু সুদৃঢ় আক্রমণ যদিও ডিফেন্স এবং ডিডিসির গোলকিপারের নৈপুন্যতায় আটকে গিয়েছে।

একদম না বললেই যা বাদ থেকে যাবে তা হলো JIMC র দর্শকদের ফুটবলপ্রীতি। শুধু হোম টিম নয় তারা সব কয়টি টিমের খেলাই উপোভোগ করেছে। আর তাদের সমাগমও ছিলো চোখে পড়ার মতো।

এরপর আরোও কিছুটা সময় পরে ডিডিসির তারেক এর পা থেকে আসে ২য় গোল। যদিও তার কিছুটা পরেই আকমলের জোড়ালো শট PAHMC র গোলকিপার ঠেকিয়ে দেয় এবং পাল্টা শট সাইডবারে লেগে ফিরে আসে।

খেলা প্রায় শেষের পথে .. PAHMC র সামনে অবিশ্বাস্য কিছু না হলে জিতার সম্ভাবনা একদম কম। কিন্তু কফিনের শেষ পেরেকটা ঠুকে দেয় আবারো ডিডিসির তারেক।খুশির জোয়ারে মেতে উঠলো ডিডিসি টিম।

আর কয়েক সেকেন্ড খেলা পর রেফারির শেষ বাশিঁ। খেলা শেষ।

ফলাফল – DDC 3 – 0 PAHMC
ম্যান অফ দা ম্যাচ – তারেক আজিজ

…………..
তথ্য:বাধন(ডি৪৯,ডিডিসি)

drferdous

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Next Post

বাংলাদেশী মাইক্রোবায়োলজিস্ট এর ইউনেস্কো এওয়ার্ড জয়

Tue Oct 24 , 2017
প্রফেসর ডাঃ সমীর শাহা, ঢাকা শিশু হাসতাপালের মাইক্রোবায়োলজি ডিপার্টমেন্ট এর হেড অফ দ্য ডিপার্টিমেন্ট । তিনি তার কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ জিতে নিলেন UNESCO Carlos J. Finlay Prize in Microbiology – 2017 । তার সাথে পাকিস্তানি মাইক্রোবায়োলজিস্ট শাহিদা হাসনাইন কেও এই পুরষ্কারে মনোনিত করা হয়েছে । UNESCO Carlos J. Finlay Prize […]

সাম্প্রতিক পোষ্ট