• প্রথম পাতা

March 22, 2016 11:30 am

প্রকাশকঃ

অস্ত্রোপচারের পর এক যুবকের পেটের ভেতর থেকে ১৯টি টুথব্রাশ বের করা হয়েছে। একই সঙ্গে প্লাস্টিকের টুকরাসহ কিছু ধাতব বস্তুও পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে  ময়মনসিংহের একটি ক্লিনিকে।

ওই যুবকের নাম শামীম (৩৫)। তিনি মাদকাসক্ত ও মানসিকভাবে ভারসাম্যহীন ছিলেন। বিষয়টি নিয়ে চিকিৎসকসহ উত্সুক মহলে নানা জিজ্ঞাসার সৃষ্টি হয়েছে।

গত শুক্রবার রাতে ময়মনসিংহ শহরের ইসলামিয়া জেনারেল (প্রা.)  হাসপাতালে শামীমের পেটে অস্ত্রোপচার করা হয়। এর নেতৃত্ব দেন ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের সিনিয়র চিকিৎসক মো. শফিকুল ইসলাম। এক ঘণ্টার এই অস্ত্রোপচারের দৃশ্য ভিডিওতে ধারণ করা হয়েছে।

গতকাল সোমবার ওই ক্লিনিকে গিয়ে দেখা যায়, অস্ত্রোপচারের পর শামীম সুস্থ আছেন। মাঝেমধ্যে কথাও বলছেন। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এই প্রতিবেদককে বলেন, ‘আমি কষ্ট, হতাশা ও অসুস্থতা থেকে এগুলো খেয়েছি।’
পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শামীমের বাড়ি ময়মনসিংহ শহরের মাসকান্দা এলাকায়। তিন-চার বছর ধরে তিনি মাদকাসক্ত ছিলেন। বিশেষ করে অতিমাত্রায় গাঁজা সেবন করতেন। একপর্যায়ে মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েন তিনি। এই নিয়ে কয়েকবার তাঁকে মাদক নিরাময় কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়; কিন্তু কিছুটা সুস্থ হয়ে ফিরে আবারও মাদকাসক্ত হয়ে পড়েন। সর্বশেষ গত বছর ৭ মার্চ ময়মনসিংহ শহরের পারাপার মাদক নিরাময় কেন্দ্রে তাঁকে ভর্তি করা হয়। তিন মাস চিকিৎসা নিয়ে আরো তিন মাস চিকিৎসা নজরদারিতে থাকেন তিনি। সেখান থেকে বাড়ি ফিরে কিছুদিন পর পেটে প্রচণ্ড ব্যথা অনুভব করতে শুরু করেন। এর মধ্যে গত ৪ ফেব্রুয়ারি তাঁকে আবারও ওই মাদক নিরাময় কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়। এ সময় পেটের ব্যথায় চিৎকার আর অসংলগ্ন কথাবার্তা বলতেন শামীম।

নিরাময় কেন্দ্রটির পরিচালক খন্দকার আলী আহসান বলেন, ‘শামীমকে পেটে ব্যথায় কষ্ট পেতে দেখে আমরা একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে এক্স-রে করাই। সেখান থেকে জানা যায় তাঁর পেটের ভেতর অস্বাভাবিক বস্তু রয়েছে।’

শামীমের বড় ভাই শাহীনুর রহমান বলেন, ‘আমরা এ মাসের প্রথম সপ্তাহে শামীমকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে ভর্তি করাই। সেখানে অপারেশনের তারিখও ঠিক হয়। কিন্তু সাত দিনের মাথায় শামীম হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যায়। কয়েক দিন পর পেটে প্রচণ্ড ব্যথা নিয়ে আবার ফিরে আসে। এ সময় চিকিৎসকরা উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় নিয়ে যেতে বলেন। কিন্তু আর্থিক সামর্থ্যের কথা চিন্তা করে আমরা তাকে শহরের ইসলামিয়া জেনারেল (প্রা.) হাসপাতালে ভর্তি করি। এরপর গত শুক্রবার রাতে শামীমের পেটে অস্ত্রোপচার হয়।’

এ ব্যাপারে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের সিনিয়র চিকিৎসক ডা. মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘পুরো বিষয়টিই আমার কাছে অবিশ্বাস্য মনে হয়েছে। পেটের ভেতর এসব টুথব্রাশ দেখে হতবাক হয়েছি। মানসিকভাবে অসুস্থ থাকায় এসব পেটে গিলেছে রোগী। তাঁর পেট থেকে গুনে গুনে ১৯টি টুথব্রাশ ও আরো প্লাস্টিকের টুকরা, ভাঙা ধাতব চামচ বের করা হয়েছে।’ তিনি আরো বলেন, ‘রোগী এখন সুস্থ রয়েছে। বুধবার থেকে তাঁকে শক্ত খাবার দেওয়া হবে। তবে তিনি যদি আবারও এসব খাওয়া শুরু করেন তাহলে তাঁকে বাঁচানো কঠিন হবে।’

সুত্র ঃ কালেরকণ্ঠ

শেয়ার করুনঃ Facebook Google LinkedIn Print Email
পোষ্টট্যাগঃ পেটের ভেতর থেকে বের হল টুথব্রাশ,

পাঠকদের মন্তব্যঃ ( 3)

  1. Ilma Afrin says:

    kivbe amn akta brsh khawya psibl???

  2. Abdur Rob Sobuz says:

    how??????

  3. সাইফুল্লাহ সাইফ says:

    ?




Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

Advertisement
Advertisement
Advertisement
.