• sticky

May 23, 2015 4:54 pm

প্রকাশকঃ

গতকাল শুক্রবার বিকেলে শাসকষ্ট নিয়ে একজন মহিলা হাসপাতালে আসেন।উনি হলেন হিন্দু থেকে মুসলমান হওয়া। উনার চিকিতসা দেন ডা পবিত্র কুমার কুন্ডু ।ইঞ্জেকসন পুস করেন এক হিন্দু সিস্টার। রুগি প্রচন্ড শাস কষ্ট হতেই থাকে। সর্বোচ্চ চেষ্টা করেও কিছু হয় নি।মারা যায় রুগি।রুগির লোক জন অপবাদ আনে যে হিন্দু মানুষ মুসলমান হওয়াতে উনাকে হিন্দু সিস্টার দিয়ে মেরে ফেলা হয়েছে।তারপর শুরু হয় হিংস্রতা,ভাংচুর।ডা এর হাতের দুইটা হাড় ভাংগল কারন এই হাত দিয়ে চিকিতসা লিখেছে,মাথা ফাটানো হয়েছে কারন এই মাথা থেকে চিকিতসার জ্ঞান এসেছে। রুগি মারা গেছে তাই ডা কে মেরে অজ্ঞান করে দেয়া হয়েছে।
ডা এখন মৃত্যু র সাথে পাঞ্জা লড়ছেন ।

Gopalganj-Photo-1(22.05.201

11015779_634376016694225_2526759157884682869_n
আক্রান্ত চিকিৎসক

এলাকাবাসীর হামলায় আহতদের মধ্যে রয়েছেন, টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক পবিত্র কুমার কুণ্ডু, স্টাফ নার্স কাকতী রানী বল ও পুলিশ কনস্টেবল শেখর। তাৎক্ষণিকভাবে আহত অন্যদের নাম জানা যায়নি।
হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান বলেন, টুঙ্গিপাড়ার মিত্রডাঙ্গা গ্রামের খাদিজাতুল কোবরা নামে এক রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভাংচুর করে স্থানীয়রা। এতে এক চিকিৎসক ও পুলিশ সদস্যসহ অন্তত ২৫ জন আহত হন।

তথ্যসূত্র- ডা রাশেদুল হাসান এবং বিডিনিউজ

শেয়ার করুনঃ Facebook Google LinkedIn Print Email
পোষ্টট্যাগঃ চিকিৎসক নির্যাতন, ডাক্তার নির্যাতন, নির্যাতন, হামলা,

পাঠকদের মন্তব্যঃ ( 0)

Comments are closed.
Advertisement
Advertisement
.